মেসির পারফরম্যান্সে আনন্দে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের ব্যাতিক্রমি উদযাপন

সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় আর্জেন্টাইন জাদুকর- এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। বিশ্বকাপ শিরোপা বাদে ক্যারিয়ারে সব কিছুই বগলদাবা করেছেন তিনি। একটি মাত্র বিশ্বকাপ ট্রফি জিতলেই পেয়ে যাবেন অমরত্বের স্বাদ।
নতুন খবর হচ্ছে, কোপা আমেরিকায় দারুণ ফর্মে আছেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টিনার স্বপ্নসারথি তিনি সব সময়ই, এবারের কোপাও ব্যতিক্রম নয়।

প্রতিটি ম্যাচেই যেন আর্জেন্টিনা সওয়ার মেসির চওড়া কাঁধে! ইকুয়েডরের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালে অপ্রতিরোধ্য ছিলেন তিনি। দুটি গোলে অবদান রেখেও তৃপ্তি পাননি।

দুরন্ত এক ফ্রি-কিকে করেছেন চোখধাঁধানো এক গোল। আর্জেন্টিনার ৩-০ গোলের জয়টা যেন পুরোই মেসিময়।
১৯৯৩ সালে শেষবার কোপা জিতেছিল আর্জেন্টিনা। সে-ই শেষ। গত ২৮ বছরে আর্জেন্টিনার জন্য বড় প্রতিযোগিতার শিরোপা অধরা। মেসি ২০১৪ ব্রাজিল বিশ্বকাপে দেশকে ফাইনালে তুলেছিলেন।

আর্জেন্টিনা কোপার ফাইনালে খেলেছিল ২০১৫ আর ২০১৬ সালে, পরপর দুবার। কিন্তু শিরোপার গৌরব গায়ে মাখা হয়নি। এবারের কোপা তাই অন্য রকম আবেগ হয়েই এসেছে আর্জেন্টিনা এবং দলটির সমর্থকদের জন্য। মেসির মতো তারকা একবারও দেশের জার্সিতে বড় গৌরবের অংশীদার হবেন না—এটা সমর্থকদের জন্য বড় কষ্টের বিষয়।

কোপায় সবকিছু ঠিকমতোই চলছে আর্জেন্টিনার। মেসিও গোটা টুর্নামেন্টেই দুর্দান্ত। এরই মধ্যে চার গোল করেছেন। গোলে সহায়তাও চারবার। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর পারফরম্যান্স আনন্দের ঢেউ তুলেছে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের মধ্যে।

তবে মেসির পারফরম্যান্সে আপ্লুত এক ব্যক্তি আবেগ প্রকাশ করতে গিয়ে আর একটু হলেই তাঁর সর্বনাশ করে দিচ্ছিলেন। তিনি সাধারণ কেউ নন, আর্জেন্টিনা দলের এক সাপোর্ট স্টাফ—মারিও দি স্তেফানো।

ইকুয়েডরের বিপক্ষে জেতার পর মেসিকে আবেগে জড়িয়ে ধরতে গিয়ে তাঁর চোখে খোঁচা দিয়ে বসেছিলেন। মেসি ব্যথা পেয়েছেন ঠিকই, কিন্তু দ্রুতই সব সামলে নেন তিনি। যদিও আবেগের বহিঃপ্রকাশে বিপদও হতে পারত। দলের এক সাপোর্ট স্টাফের মুহূর্তের ভুলে চোটও পেতে পারতেন মেসি।

কোপা আমেরিকার অফিশিয়াল টুইটার পেজ এর একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে। তাতে যে ক্যাপশনটি তারা ব্যবহার করেছে, সেটি বেশ মজার, ‘ভালোবাসা অনেক সময় আঘাত দেয়। আর্জেন্টিনার ১০ নম্বরের ব্যাপারে পরেরবার থেকে আরও সতর্ক হতে হবে।’ বুধবার বাংলাদেশ সময় ভোরে কোপার সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে মেসির আর্জেন্টিনা।

সংশ্লিষ্ট খবর