রেকর্ড গড়া মেসির লক্ষ্য শুধুই শিরোপা

কোপা আমেরিকার শেষ আট আগেই নিশ্চিত হয়েছিল আর্জেন্টিনার। আজ সকালে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বলিভিয়ার বিপক্ষে চাইলে কোচ লিওনেল স্কালোনি বিশ্রামও দিতে পারতেন লিওনেল মেসিকে।
কিন্তু মেসি নাকি এই ম্যাচে বিশ্রামই নিতে চাননি! রেকর্ড গড়ার হাতছানি দেওয়ার ম্যাচে তাইতো যথারীতি অধিনায়কত্বের বাহুবন্ধনী ছিল মেসির হাতে।

আর্জেন্টিনার জার্সিতে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা এত দিন ছিল হাভিয়ের মাচেরানোর। আজ কুইয়াবায় বলিভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে খেলতে নেমে মাচেরানোকে ছাড়িয়ে গেলেন মেসি। আর্জেন্টিনার হয়ে খেলে ফেললেন সর্বোচ্চ ১৪৮তম ম্যাচ। রেকর্ডময় ম্যাচে মেসি নিজে ২ গোল করেছেন, করিয়েছেন ১টি। ম্যাচটিতে বলিভিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা।

২০০৫ সালে আর্জেন্টিনার জার্সিতে হাঙ্গেরির বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে অভিষেক হয়েছিল মেসির। ১৮ বছর বয়সে ওই ম্যাচে খেলতে নেমে অভিজ্ঞতাটা মোটেই সুখের ছিল না। মাঠে নামার ৪৩ সেকেন্ডের মাথায় লাল কার্ড দেখে বেরিয়ে আসেন মেসি।

আর্জেন্টিনার হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডও মেসির। আজ পেয়েছেন ক্যারিয়ারের ৭৪ ও ৭৫তম গোল। এই জয়ে টানা ১৭ ম্যাচ অপরাজিত আর্জেন্টিনা। সোমবার কোয়ার্টার ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ ইকুয়েডর।

ক্লাব ফুটবলে বার্সেলোনার জার্সিতে একগাদা ট্রফি জিতেছেন মেসি। কিন্তু এখনও জাতীয় দলে কোনো বড় অর্জন নেই। ১৯৯৩ সালে কোপা শুরুর পর থেকে বড় কোনো ট্রফিও জেতেনি আর্জেন্টিনা।

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে এসে যে লক্ষ্যটা শুধুই শিরোপায় এসে ঠেকেছে, সেটাই বোঝা গেছে মেসির কথা শুনে, ‘আমি যথেষ্ট ভাগ্যবান যে ক্লাব ও ব্যক্তিগত পর্যায়ে সব কিছু জিতেছি। যদি জাতীয় দলের হয়েও এমন কিছু জিততে পারতাম, তাহলেও খুব ভালো হতো।’

জাতীয় দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার পর বার্সেলোনা ক্লাবও অভিনন্দন জানিয়েছে মেসিকে, ‘সত্যিকারের কিংবদন্তি লিও, অভিনন্দন।’

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment