বাংলাদেশের বিশ্বকাপ খেলা নিয়ে এই প্রথম যা বললেন জিদান

ফুটবল বিশ্বের অন্যতম একজন ফরাসী তারকা যার নাম জিনেদিন জিদান। কয়েক বছর আগেই ২০০৬ সালের ৭
নভেম্বর,বাংলাদেশের গাজীপুরে এসেছিলেন তিনি। শুধু তাই নয় সেখানে এসে স্থানীয় ক্ষুদে ফুটবলারদের সাথে খেলেছিলেন ফুটবল ম্যাচও।

সেদিনই বাংলাদেশের মানুষের ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা দেখে তিনি জানিয়েছিলেন অদূর ভবিষ্যতে একদিন ঠিকই বিশ্বকাপে জায়গা করে নেবে বাংলাদেশ।
বিশ্বজুড়ে ফুটবলীয় নৈপুণ্যে ভক্তদের হৃদয় জয় করা ফরাসী ফুটবল সম্রাট জিনেদিন জিদানের আগমন ঘটেছিল এই

বাংলাদেশে। বিশেষ করে গাজীপুরের তিনটি গ্রাম, ইটাহাটা, কামারবাঁশলিয়া, মজলিশপুর গ্রামে। জিনেদিন জিদান সেদিন যে শুধু এসেছিলেন এমনটাই নয়।
তিন গৃহস্থের বাড়ি গিয়ে তাদের খোঁজখবর নিয়েছেন, করেছেন কুশল বিনিময়। সেই সাথে মজলিশপুর স্কুল মাঠে

Advertisements

আয়োজিত এক প্রীতি ম্যাচেও অংশ নেন এই তারকা। এদিন মজলিশপুর স্কুল মাঠে ফুটবল খেলায় অংশ নেন জিদান।
তার অ্যাসিস্ট থেকে গোল করে সেদিন লাল দলকে ৭ বছর বয়সী সাইফুল।যেই জিদান তখন গোল বানিয়ে দিতেন
রাউল, রোনালদো, থিয়েরি অরির মতো তারকাদের; সেই টেকো মাথার ফুটবলারের সহায়তায় গোল করে দলকে জেতান

Advertisements

সাইফুল। এদিকে গাজীপুর সফর শেষে করে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য জিদান এসেছিলেন বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামেও।
সেখানেও একটি ম্যাচে অংশ নেন এই সুপারস্টার। ম্যাচ শেষে এক সাক্ষাৎকারে ফুটবলে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে
কথাও বলতে দেখা যায় রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে মাঠ মাতানো এই তারকাকে। এ সময় জিদান জানান, “আমি বাংলাদেশের

মানুষের ফুটবল আবেগ দেখে অভিভূত। যে দেশ ফুটবল কে এত ভালোবাসে সে দেশ (বাংলাদেশ) একদিন বিশ্বকাপ খেলবেই।”
তবে জিদানের ভবিষ্যৎবাণী এখনো পূর্ণতা পায়নি। কবে পাবে তারও কোন নিশ্চয়তা নেই। কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি এবং ফুটবল নিয়ে সুদূরপ্রসারি চিন্তা-ভাবনায় পারে দেশকে বিশ্বমঞ্চে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ এনে দিতে।

Related Post