৫ ব্যাটসম্যান ও ৩ বোলারের প্রশংসা করে জাতীয় দলের সুখবর দিলেন পাপন

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) এবারের আসরে ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন নুুরুল হাসান সোহান, মুনিম শাহরিয়ার, মাহমুদুল হাসান জয় এবং মিজানুর রহমান মিজানরা। এ দিকে বল হাতে উজ্জ্বল ছিলেন কামরুল ইসলাম রাব্বি, শরিফুল ইসলাম ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনরা।

ডিপিএলের রাব্বি-সোহানদের পারফরম্যান্সে মুগ্ধ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
আবাহনী লিমিটেড ও প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের সঙ্গে ম্যাচ চলাকালীন পাপন জানিয়েছেন, বেশ কয়েকজন প্রতিভাবান ক্রিকেটার পেয়েছেন তাঁরা।

ব্রাদার্স ইউনিয়ন ডিপিএলের সুপার লিগে উঠতে না পারলেও ব্যাট হাতে দারুণ সময় পার করেছেন মিজানুর রহমান। দলটির হয়ে ১১ ম্যাচে করেছেন ৪১৮ রান। যেখানে একটি সেঞ্চুরিও রয়েছেন তাঁর। যা কিনা ডিপিএলের এবারের আসরের প্রথম সেঞ্চুরি।

রেলিগেশন লিগ খেললেও ওল্ড ডিওএইচএসের হয়ে ১৩ ম্যাচে ৩৯২ রান। শেখ জামাল ধানমন্ডিকে ক্লাবকে নেতৃত্ব দেয়া নুরুল হাসানও ১৫ ম্যাচে করেছেন ৩৮২ রান। আর চ্যাম্পিয়ন আবাহনীর হয়ে খেলা মুনিম করেছেন ১৪ ম্যাচে ৩৫৫ রান।

Advertisements

ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স নিয়ে পাপন বলেন, ‘সবসময়ই আমার ঘরোয়া খেলা ভালো লাগে। এর আগে যে আমরা বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ করলাম। ওইখানে স্থানীয় অনেক প্রতিভা দেখতে পেয়েছি, এখানেও আমরা পেয়েছি।’

Advertisements

তিনি আরও বলেন, ‘অনেকে ভালো খেলেছে তবে সর্বোচ্চ রানের দিক থেকে এই ম্যাচের আগ পর্যন্ত যদি আমরা দেখি ওইখানে মিজানুর, সোহান, মাহমুদুল হাসান, মুনিম শাহরিয়ার, ইমনও ভালো করেছে। আমরা অনেকগুলো অপশন পেয়েছি। জাতীয় দলে যারা নিয়মিত খেলে তাদের বাইরেও আমরা কিছু খেলোয়াড় দেখেছি যারা পাইপলাইনে আছে।’

জাতীয় দলের আশেপাশে না থাকলেও ডিপিএলে বল হাতে দারুণ সময় পার করেছেন রাব্বি। প্রাইম দোলেশ্বরের হয়ে ১৭ ম্যাচ খেলা রাব্বি নিয়েছেন ২৬টি উইকেট। সমান সংখ্যক ২৬ উইকেট নিয়ে যৌথভাবে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় রয়েছেন সাইফউদ্দিন।

এদিকে তিনে থাকা শরিফুল নিয়েছেন ২২টি উইকেট। বোলারদের পারফরম্যান্স প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘বোলিংয়ে অবশ্যই সাইফউদ্দিন, কামরুল ইসলাম রাব্বি, শরিফুল এরা বোধহয় এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি। কিন্তু ভালো বোলারও পেয়েছি আমরা যাদের কিনা প্রতিভা আছে, ভালো করছে। সব মিলিয়ে এটা খুবই ভালো।’

Related Post