ফাইনালে হেরে নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে কোহলির মন্তব্য ভাইরাল

বড় ম্যাচের চাপ সামলাতে পারেন না বিরাট কোহলি- কথাটার স্বপক্ষে আরও একটি উদাহরণ। সাউদাম্পটনে উড়তে থাকা ভারতের হোঁচট এবং ম্যাচে কোহলিদের প্রশ্নবিদ্ধ ভূমিকা- সব মিলিয়ে প্রথম টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা হাতছাড়া করে বেশ বিপদেই টিম ইন্ডিয়া।

তবে ফাইনাল হারলেও নিউজিল্যান্ডকে সেরা টেস্ট দল মানতে নারাজ ভারত অধিনায়ক। টেস্টের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন বাছাই প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তোলার পাশপাশি ভবিষ্যতে ফাইনালে অন্তত তিন ম্যাচের সিরিজ চান কোহলি। টেস্ট ক্রিকেটের এত দীর্ঘ ইতিহাসে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপটাই প্রথম কোন শিরোপানির্ধারণী টুর্নামেন্ট।

যেখানে দেড় বছরের লম্বা সময় ধরে চলা হোম-অ্যাওয়ে ম্যাচ শেষে নির্বাচিত করা হলো সাদা পোশাকের সেরা দলকে। বিজয়ীদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের গদাও। তবে ফাইনাল হারা কোহলি কিউইদের সেরা মানতে নারাজ। মাত্র দুই দিন ভালো খেললেই যে কোন দল সেরা হয়ে যাবে এমন ধারণায় ঘোর আপত্তি বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানের।

ফাইনাল হেরে কোহলি বলেন, ‘মাত্র একটি ম্যাচ ঠিক করে দেবে বিশ্বের সেরা টেস্ট দল কোনটি- এটা আমি মানতে রাজি নই। টেস্ট সিরিজ হলে দলের চারিত্রিক গঠন অনেক বেশি বোঝা যায়। বোঝা যায় হেরে গিয়েও ফিরে আসার মানসিকতা কোন দলের রয়েছে। এটা হতে পারে না যে চাপের মুখে আপনি দুই দিন ভাল খেললেন, তারপর হেরে গেলে আপনি আর বিশ্বের সেরা টেস্ট দল নয়। আমি এটা বিশ্বাস করি না।

Advertisements
Advertisements

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে ফাইনালের আগের সিরিজগুলো ৩ বা ৫ ম্যাচের হলেও ফাইনাল হয়েছে এক ম্যাচে। যেখানেও আপত্তি কোহলির। ১৮ মাসের লম্বা সময় ধরে চলা টুর্নামেন্টের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচ কেন এক ম্যাচে হবে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ভারত অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘এটার দিকে নজর দিতে হবে। ভবিষ্যতে এই ব্যাপারটা ভেবে দেখা উচিত। তিন ম্যাচের সিরিজে ওঠা পড়া থাকবে।

প্রথম ম্যাচের ভুল শুধরে নেওয়ার সুযোগ থাকবে। তবেই তো বোঝা যাবে কোন দল সেরা? এই হার নিয়ে আমরা ভাবতে রাজি নই। শেষ ১৮ মাস ধরে আমরা কেমন খেলেছি সেটা আমরা জানি। এই ম্যাচটা আমাদের ক্ষমতার, প্রতিভার প্রমাণ হতে পারে না। সাউদাম্পটনের ফাইনালে বৃষ্টি বাগড়া থাকলেও রিজার্ভ ডেতে উত্তেজনা ছিল চরমে। প্রতি মুহুর্তে খেলার লাগাম বদল, আর সাসপেন্সে সাদা পোশাকের ক্রিকেটকে বেশ উপভোগ্যই করে তুলেছিল দুই ফাইনালিস্ট।

তাই কোহলি প্রশ্ন, এমন লড়াই আরও বেশি কেন দেখতে পারবে না দর্শক?অল্প সময়ের জন্য দুই দলের মধ্যে যে লড়াইটা মাঠে হল, কেন সেটা আরও দুটো টেস্টে দেখতে চাইব না? অতীতের কোনও টেস্টের কথা বলা হলে ৩ বা ৫ ম্যাচের সিরিজের কথাই মাথায় আসে। দুই দলের সেই লড়াইটাই মনে থেকে যায়। এটা নিয়ে আসা দরকার। টেস্টের সেরা দল বেছে নেওয়ার জন্য অন্তত তিনটি ম্যাচের প্রয়োজন।’- কোহলি জানান

Related Post