৬ ছক্কা মারার পর যুবরাজকে যা বলেছিলেন ব্রডের বাবা

দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাট হাতে ঝড় তুলে ইতিহাস গড়েছিলেন ভারতের যুবরাজ সিং। এন্ড্রু ফ্লিনটফের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে তেলে বেগুনে জ্বলে উঠা যুবরাজ, সমস্ত রাগ ঝেড়েছিলেন তরুণ স্টুয়ার্ট ব্রডের উপর।

তরুণ পেসারের এক ওভারেই সেদিন ছয় ছক্কা হাঁকিয়ে ছিলেন ভারতীয় অলরাউন্ডার। যুবরাজের এমন ঝড় ব্যাটিংই সে ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দিয়েছিলো এবং শেষ পর্যন্ত ভারতের কাছে ১৮ রানে হেরে টুনার্মেন্ট থেকে ছিটকে যায় ইংল্যান্ড। ক্যারিয়ারের শুরুতেই এমন তিক্ত স্বাদ পাওয়ায় অনেকেই স্টুয়ার্ট ব্রডের ভবিষ্যৎ নিয়েই শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন।

যে তালিকা থেকে বাদ যাননি স্বয়ং স্টুয়ার্ট ব্রডের বাবা ক্রিস ব্রড। এই ম্যাচের পর তিনি যুবরাজ সিংয়ের সাথে এ নিয়ে কথা বলেন। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে সে ঘটনা নিয়ে ভারতীয় অলরাউন্ডার জানিয়েছেন, “আমার মনে আছে যখন আমরা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনাল খেলছিলাম, ক্রিস ব্রড, স্টুয়ার্টের বাবা ছিলেন ম্যাচ রেফারি। তিনি খেলার আগে আমার কাছে এসেছিলেন এবং বলেছিলেন

‘আমার ছেলের ক্যারিয়ার প্রায় শেষ করার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ।’ আমি বললাম, ব্যক্তিগত কিছু নয়। আমি নিজেই ৫ ছক্কা খেয়েছি, আমি জানি এতে কেমন লাগে।” এমনকি ছেলের জন্য যুবরাজের কাছে থেকে ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচের জার্সিও নিয়ে যান ক্রিস ব্রড। ভারতীয় অলরাউন্ডার সে প্রসঙ্গে যোগ করেন, “তিনি আমাকে আরও বলেছিলেন, ‘ছয় ছক্কা মারার সময় তুমি যে জার্সিটি পরেছিলে, তোমাকে তা স্টুয়ার্টকে দিতে হবে।’

আমি তাকে জার্সিটি দিয়েছিলাম এবং তাতে লিখেছিলাম ‘আমি জানি এটি কেমন লাগে, কারন আমি নিজেও পাঁচটি ছক্কা খেয়েছি। তুমি ইংল্যান্ডের ভবিষ্যৎ, আমি নিশ্চিত, তুমি দূর্দান্ত করবে।’ এবং দেখুন তিনি আজ কোথায় আছেন, তার এখন পাঁচ শতাধিক টেস্ট উইকেট আছে।”

Related Post

x