চার-ছক্কার বন্যায় ৬৬ বলে ১০১ রানের বিধ্বংসী ব্যাটিং দেখল মিরপুর

তার হাতে জাদুর চেরাগ নেই। তবে এ মুহূর্তে তার বল ও ব্যাটে যেন জাদু ভর করেছে। আগের ম্যাচে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের বিপক্ষে বল হাতে দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকের পর এবার ‘জায়ান্ট’ আবাহনীর বিপক্ষে ব্যাট হাতে ঝড় তুললেন আলাউদ্দিন বাবু।

মিরপুরের শেরে বাংলায় বৃষ্টিভেজা ১১ ওভারের ম্যাচে ধুঁকছিল ব্রাদার্স ইউনিয়ন। ৭.৪ ওভারে ৫১ রানেই ব্রাদার্স ইনিংসের অর্ধেকটা শেষ হয়ে গিয়েছিল।

ঠিক ঐ অবস্থায় হাল ধরলেন আলাউদ্দিন বাবু আর জাহিদুজ্জামান। শেষ ৩ ওভারে তারা দুজন তুলে নিয়েছেন ৫১ রান। ৮ ওভার শেষে ব্রাদার্সের রান ছিল ৫ উইকেটে ৫১। শেষ ১৮ বলে আলাউদ্দিন বাবু জাহিদুজ্জামান ৫১ রান জুড়ে দিলে ১১ ওভার শেষে ব্রাদার্সের স্কোর ১০০ পেরিয়ে হয়েছে ১০১ (৫ উইকেটে)।

তার আগে অধিনায়ক মিজানুর রহমান (১৪ বলে ২০), জুনায়েদ সিদ্দিকী (২৩ বলে ২০), মাইশিকুর রহমান (০), রাহাতুল ফেরদৌস জাভেদ (০) ও হাবিবুর রহমান জনি (৪) সাজঘরে ফিরলে মনে হচ্ছিল ব্রাদার্স ৭০-৮০‘র মধ্যে আটকে থাকবে।

কিন্তু আলাউদ্দিন বাবু ১০ বলে ২৪ আর জাহিদুজ্জামান সমান বলে ২৫ রানের ঝড়ো ইনিংস উপহার দেন। এর মধ্যে আলাউদ্দিন বাবু তিনটি বিশাল ছক্কা হাঁকান, যার সবকটাই শেরে বাংলার দোতলায় গিয়ে আছড়ে পড়ে। প্রথম দুটি ছিল বাঁহাতি স্পিনার তাইজুলের বলে, ডিপ মিড উইকেটের ওপর দিয়ে স্লগ সুইপ শটে।

আর পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের করা দশম ওভারে আলাউদ্দীন বাবু শেষ ছক্কাটি হাঁকান পুল করে। সেটাও শেরে বাংলার গ্র্যান্ডস্ট্যান্ডে গিয়ে আছড়ে পড়ে।

ব্রাদার্সের ১১তম ও শেষ ওভারটিতে ছিল জাহিদুজ্জামানের ব্যাটিং তাণ্ডব। আবাহনীর পেসার মেহেদি হাসান রানাকে দুটি করে চার-ছক্কায় ২১ রান তুলে নেন উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment