২০১০ সাল থেকে ভারত হয়েছে পৃথিবীর সেরা দল

ক্রিকেটের যে কোনও ফর্ম্যাটে টিম ইন্ডিয়ার পারফরম্যান্স গত বেশ কয়েক বছর ধরে দুর্দান্ত। যদিও এই দলটি ২০১৩ সাল থেকে আইসিসির কোনও শিরোপা জিততে পারেনি, তবে ভারতীয় দল অন্যান্য দেশের সাথে খেলে যাওয়া বেশিরভাগ ক্রিকেট দলকে প্রাধান্য দিয়েছে।

টিম ইন্ডিয়ায় প্রতিভার অভাব নেই এবং এই খেলোয়াড়দের ভিত্তিতে এই দলের বিশ্বের যে কোনও কোণে জয়ের শক্তি রয়েছে। ভারতের দলকে একদিনে এতটা শক্তিশালী করা যায়নি, তবে এর পিছনে রয়েছে বছরের পর বছর কঠোর পরিশ্রম। পাকিস্তান ক্রিকেট দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার রশিদ লতিফ কেন টিম ইন্ডিয়া এত শক্তিশালী হয়ে উঠল

কেন এই দলটি ২০১০ সাল থেকে বিশ্ব ক্রিকেটে রাজত্ব করছে সে সম্পর্কে বলেছিলেন। রশিদ লতিফ জানিয়েছিলেন যে, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের কারণে টিম ইন্ডিয়া ২০১০ সাল থেকে বিশ্ব ক্রিকেটে রাজত্ব করে আসছে। তিনি বলেছিলেন যে ভারতীয় খেলোয়াড়ের এত ভাল পারফরম্যান্স হয়েছে এবং এর পিছনে আইপিএল একটি বড় কারণ। এক সাক্ষাত্কারের সময় লতিফকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল

যে টিম ইন্ডিয়া একই সাথে দুটি ভিন্ন দল খেলতে পারে কিনা। এর জবাবে তিনি বলেছিলেন, আইপিএলের কারণে ভারত অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াড় পেয়েছে যারা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলতে প্রস্তুত এবং সে কারণেই ভারত এমন অবস্থানে রয়েছে যে, এটি একই সাথে দুটি দল খেলতে পারে। লতিফ বলেছিলেন যে ২০১০ সাল থেকে এখন আইপিএলের স্তর অনেক বেড়েছে।

তারা এখন ডেটা এবং বায়োমেকানিক্স ব্যবহার শুরু করেছে। ফ্র্যাঞ্চাইজিরা নিশ্চিত করেছিল যে বিদেশি কোচরা ভারতে বেশি সময় ব্যয় করে এবং নতুন প্রতিভা সন্ধান করে। উদাহরণস্বরূপ, নতুন প্রতিভা সন্ধানের জন্য মুম্বই ইন্ডিয়ান্স জন রাইটকে ভাড়া করেছিল। তিনি দীর্ঘদিন ভারতে বসবাস করেন এবং নতুন প্রতিভার সন্ধানে দেশের বিভিন্ন জায়গায় গিয়েছিলেন।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্স থেকে হাজির হয়েছেন জসপ্রিত বুমরাহ, ইশান কিশান এবং হার্দিক পান্ডিয়া। এটি বিশ্বের বৃহত্তম টি টোয়েন্টি লিগ এবং এর মাধ্যমে অনেক খেলোয়াড় এগিয়ে এসেছেন যারা ভারতীয় দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment