এক ফরম্যাটে করে ক্রিকেটকে বিদায় দিলেন তামিম, ও সাকিব!

বাংলাদেশের একমাত্র সফল ওপেনার হলো তামিম ইকবাল এবং এখন তিনি বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। ৮ বছর পর এই জুন-জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ে সফরে যাবে বাংলাদেশ দল।

সফরে একটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে টাইগাররা৷ এই সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে অনীহা জানিয়েছেন টাইগার ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল৷ অন্যদিকে গুঞ্জন আছে এই সিরিজেও টেস্ট খেলবেন না সাকিব আল হাসান।

গেল নিউজিল্যান্ড সফরে ওয়ানডে খেলেই ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ না খেলেই দেশে ফিরেন তামিম ইকবাল। তখনই গুঞ্জন উঠে তাহলে কি টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নিবেন তামিম? তাছাড়া তামিম জানিয়েও ছিলেন ক্যারিয়ার লম্বা করতে এক ফরম্যাট থেকে অবসরে যাবেন তিনি।

এবার সেই গুঞ্জন যেন আরো বেশি হলো। কেননা টাইগারদের জিম্বাবুয়ে সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন তামিম ইকবাল৷ বিসিবিকে সরাসরি তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলবেন না তিনি। তবে ওয়ানডে ও টেস্টে খেলবেন।

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান দেশের এক গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন এই তথ্য। তিনি জানিয়েছেন, ক্যারিয়ার লম্বা করতেই এই সিদ্ধান্ত তামিমের। আর তামিমের সেই সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাবে বিসিবিও।

এদিকে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে না খেলে আইপিএলে অংশ নেওয়া সাকিব জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টেও খেলবেন না বলে জানিয়েছে বিসিবির একটি সুত্র। সেক্ষেত্রে টেস্টে সাকিবকে পেতে আরো অপেক্ষা বাড়লো। যদিও আকরাম খান জানিয়েছেন এ ব্যাপারে সাকিব এখনো কোন চিঠি দেননি।

এদিকে, কোয়ারেন্টাইনের ঝামেলা কাটিয়ে আর ক্রিকেটারদের মানসিক ভাবে সুস্থ রাখতে জিম্বাবুয়ে সিরিজে রোটেশন পদ্ধতিতে ক্রিকেটারদের খেলাতে চায় বিসিবি। যেকারণে এই সিরিজে অনেক সিনিয়র ক্রিকেটাররাই বিশ্রামে থাকতে পারেন। সেই জায়গায় সুযোগ পেতে পারেন তরুণ ক্রিকেটাররা।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment