আইপিএল খেলতে পারবেন না সাকিব-মুস্তাফিজ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চতুর্দশ আসরে বাংলাদেশ থেকে অংশ নিয়েছিলেন দুইজন- অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। করোনায় আইপিএল বন্ধ হওয়ার আগে খেললেও আইপিএলের বাকি অংশে খেলা হবে না তাদের। জৈব সুরক্ষা বলয়ে করোনা হানা দিলে অর্ধেক আয়োজনের পর বন্ধ করা হয় আইপিএল।

কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইপিএল সম্পন্ন করবে বিসিসিআই। তবে সেই অসমাপ্ত অংশে খেলতে পারবেন না সাকিব ও মুস্তাফিজ। কারণটাও স্পষ্ট। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হোম সিরিজ খেলবে টাইগাররা।

বিশ্বকাপের আগে ক্রিকেটারদের তাই দম ফেলার সময় নেই। জাতীয় দলের খেলার জন্য তাদের আইপিএলে খেলার অনাপত্তিপত্র বা নো অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি) দিবে না বিসিবি। মুস্তাফিজ আইপিএলে খেলতে গিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কা সফরের টেস্ট দলে না থাকার সুবাদে। সাকিব অবশ্য ছুটি চেয়ে নিয়েছিলেন আইপিএলের জন্য।

তার সেই ছুটি ছিল ১৮ মে পর্যন্ত। এখন তাই আইপিএল গড়ালেও আগের এনওসি কার্যকর হবে না সাকিবের জন্য। এ বিষয়ে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘সাকিবের আইপিএলের বাকি অংশের খেলায় অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই। কারণ ঐ সময় বাংলাদেশে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল অবস্থান করবে বাংলাদেশে সিরিজ খেলার জন্য।

তাই সাকিবের সে সময় অনাপত্তিপত্র পাওয়ারও কোনো সুযোগ নেই।’ সাকিবের মত একই ব্যাপার খাটছে মুস্তাফিজের ক্ষেত্রেও। আইপিএলের বাকি অংশের জন্য এনওসি পাবেন না তিনিও। চতুর্দশ আইপিএলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলেছিলেন সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান খেলেছিলেন রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে।

ভারতে সম্ভব না হলেও বিকল্প ভেন্যুতে আইপিএলের বাকি অংশ আয়োজন করবে বিসিসিআই। তবে ঠাসা আন্তর্জাতিক সূচির কারণে সেই অংশে খেলতে পারবেন না অনেক বিদেশি ক্রিকেটারই।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment