ব্রেকিং নিউজঃ বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিক ১৫০ রান করলেন!

বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান হলেন মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের নির্ভর যোগ্য ক্রিকেটার হলেন তিনি।

বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ জয়ের রেকর্ড আগেই নিজের দখলে নিয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম। এবার আরেকটি মাইলফলক স্পর্শ করলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে জয়ের মাধ্যমে প্রথম ও একমাত্র বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১৫০ ম্যাচ জয়ের স্বাদ পেলেন মুশফিক।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ১৫ রানের মাথায় দলের দুই ব্যাটিং স্তম্ভ তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান সাজঘরে ফেরার পরে মাঠে নেমেই হাল ধরেছিলেন মুশফিক। আউট হয়েছেন শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে।

তার ব্যাট থেকে আসে ১২৭ বলে ১২৫ রান। ১০টি চার হাঁকান এই ডানহাতি ক্রিকেটার। দলের পক্ষে টানা দুই ম্যাচে সর্বোচ্চ রান করে দলকে জেতালেন তিনি।

বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন মুশফিক। তাই তিনি সর্বোচ্চ জয়ের সাক্ষী হবেন এটাই অনুমিত। এই তালিকায় সবাইকে ছাড়িয়ে যাওয়ার পাশাপাশি দেড়শ জয়ের মাইলফলকও স্পর্শ করে ফেলেছেন মুশফিক।

বাংলাদেশের পক্ষে ৩৮৬তম ম্যাচে এসে ১৫০তম জয়ের দেখা পেলেন তিনি। দলের এই জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে ম্যাচ সেরা খেলোয়াড়ও নির্বাচিত হয়েছেন এই ব্যাটসম্যান।

এই তালিকায় মুশফিকের পরেই সাকিবের অবস্থান। ওয়ানডের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের নামের পাশে আছে ১৩৬টি জয়। সাকিব মোট আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন ৩৪৪টি। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৩৩৪টি ম্যাচ খেলে জয়ের দেখা পেয়েছেন ১২৮টি ম্যাচে।

ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল খেলেছেন ৩৫৬টি ম্যাচ, জয়ের সাক্ষী হয়েছেন ১২৬টি ম্যাচে। সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ৩১০ ম্যাচ খেলে জয়ের স্বাদ পেয়েছেন ১১৮টি ম্যাচে।

বাংলাদেশের পক্ষে কেবল এই পাঁচ জন ক্রিকেটারেরই ১০০টি ম্যাচে জয়ের অভিজ্ঞতা আছে। মাশরাফি এখন দলে ব্রাত্য হয়ে গেলেও বাকি ৪ জন খেলে যাচ্ছেন। তাদের সামনে রয়েছে নিজেদেরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ।

প্রসঙ্গত, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছিল ৩৩ রানে এবং দ্বিতীয় ম্যাচটিতে ১০৩ রানের বড় জয়ে সিরিজ জয় নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকরা।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment