যে কারনে আইপিএল নিলামে দল পায়নি মুশফিক-রিয়াদ-সাইফুদ্দিন গোপন তথ্য ফাঁস

এবারও উপেক্ষার শিকার হলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটার মুশফিকুর রহীম। এবারও আইপিএলের নিলাম তালিকায় নাম দেয়া হয়েছিল মুশফিকের। ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর আগ্রহের কারণেই মুশফিকের নাম তালিকভূক্ত করা হয়। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয়, মুশফিকের নাম নিলামেই তোলা হয়নি।

বাংলাদেশের মোট ৫জন ক্রিকেটারের নাম ছিল এবার নিলামের তালিকায়। সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাইফউদ্দিন এবং মুশফিকুর রহীমের।

নিলামের ২ নম্বর সেটে ছিলেন সাকিব আল হাসান। তার ভিত্তিমূল্য ছিল ২ কোটি রুপি। চার নম্বর সেটে ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তার ভিত্তিমূল্য ছিল ৭৫ লাখ রুপি। এই দু’জনকে কিনে নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং রাজস্থান রয়্যালস।

মোট ২৯২ জন খেলোয়াড়কে রাখা হয়েছিল নিলামের তালিকায়। কিন্তু ১৩০ জনের নাম ডাকতেই প্রতিটি দলের কোটা পূরণ হয়ে যায়। যে কারণে বাকিদের নাম আর ডাকাই হয়নি। যে কারণে সাকিব, মোস্তাফিজের পর রিয়াদ, সাইফউদ্দিন এবং মুশফিকের নাম ডাকাই হয়নি এবারের আইপিএলের নিলামে।

আইপিএল নিলামে এবার এক কোটি রুপি ভিত্তিমূল্যে আছেন মুশফিক। তবে সবচেয়ে বেশি ভিত্তিমূল্য সাকিবের—দুই কোটি। মোস্তাফিজের ভিত্তিমূল্যও এক কোটি রুপি। মাহমুদউল্লাহর ভিত্তিমূল্য ৭৫ লাখ রুপি। এবারই প্রথম আইপিএল নিলামে থাকা অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিনকে দলে পেতে কমপক্ষে ৫০ লাখ রুপি খরচ করতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে।

গতবার প্রথমে নিজে থেকেই নিবন্ধিত হতে চাননি মুশফিক। পরে আইপিএল থেকেই অনুরোধ এলে তিনি নাম দেন। মনে হচ্ছিল তাঁকে নিয়ে আগ্রহ আছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত একই ব্যাপারের পুনরাবৃত্তি—অবিক্রিত মুশফিক
বাংলাদেশ থেকে আইপিএলে নিয়মিত মুখ সাকিবই।

২০১১ সাল থেকে অনেক আসরেই খেলেছেন তিনি। কলকাতা নাইট রাইডার্সের নিয়মিত সাকিবকে একসময় ছেড়ে দিয়েছিল তারা। এরপর তাঁকে নেয় সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। একই ফ্র্যাঞ্চাইজিতে একাধিক মৌসুম খেলেছেন মোস্তাফিজ। প্রথম আবির্ভাবে তো আইপিএলের সেরা উদীয়মানই হয়েছিলেন এই বাঁহাতি পেসার। মাহমুদউল্লাহ, মুশফিক কিংবা সাইফউদ্দিন—এবার দল পেলে সেটি হবে বড় ঘটনাই।

একাধিকবার নিলামে নাম উঠলেও মুশফিক শেষ পর্যন্ত অবিক্রিতই থেকে যান। গতবারের ব্যাপারটা ছিল একটু অদ্ভুত। প্রথমে নিজে থেকেই নিবন্ধিত হতে চাননি মুশফিক। পরে আইপিএল থেকেই অনুরোধ এলে তিনি নাম দেন। মনে হচ্ছিল তাঁকে নিয়ে আগ্রহ আছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত একই ব্যাপারের পুনরাবৃত্তি—অবিক্রিত মুশফিক। বিষয়টা নিয়ে মুশফিক নিজেও কিছুটা অবাক হয়েছিলেন।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment