ব্রেকিং নিউজ: ফিরছেন ইমরুল

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের ২৩ সদস্যের প্রাথমিক দলে ছিলেন ব্যাটসম্যান ইমরুলল কায়েস। ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিইরজ ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে ছিলেন না তিনি। স্কোয়াড ঘোষণার পর সংবাদ মাধ্যমে কায়েস জানিয়েছিলেন তাকে ঘিরে নাকি পরিকল্পনা রয়েছে টিম ম্যানেজমেন্টের, এমন কথা তাকে বলেছেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

আলাদা করে কায়েস এটাও বলেছিলেন ৫ নম্বর পজিশনে ব্যাট করার জন্য তিনি যেন নিজেকে প্রস্তুত করে রাখে, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে যাবার আগে তামিম নাকি এটাও বলেছিলেন।

ঘরের মাঠে লঙ্কানদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করার পর একাধিক বোর্ড কর্তাও জানিয়েছিলেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েসকে খেলানো হতে পারে ৫ নম্বরে। কিন্তু কিসের কি! প্রথম দুই ম্যাচের জন্য ঘোষিত ১৫ সদস্যের চূড়ান্ত স্কোয়াড থেকে বাদ দেয়া হয় কায়েসের নাম। সেই সাথে স্ট্যান্ডবাই যে চারজন ক্রিকেটারকে রাখা হয়েছে সেখানেও নাম নেই কায়েসের!

ইমরুল কায়েসের মত পরীক্ষিত ব্যাটসম্যান প্রায় আড়াই বছর ধরে দলের বাইরে থাকলেও জোড়াতালি দেয়া পারফরম্যান্স করা একাধিক ব্যাটসম্যানকে রাখা হয়েছে দলে! শুধু দলেই রাখা হয়নি, তাদের পক্ষে আবার জোর গলায় সাফাই গাইতেও শোনা যায় বিসিবির দায়িত্বশীল কর্তাদের।

লঙ্কানদের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচের স্কোয়াডে ইমরুল কায়েসকে ছাটাই করা হলে সামাজিক মাধ্যমে শুরু হয় তীব্র সমালোচনা। ক্রিকেট বিশ্লেষক থেকে শুরু করে সাধারণ ক্রিকেট ভক্তরাও নির্বাচকদের সমালোচনায় মাতেন।

ইমরুল কায়েসকে প্রথম দুই ম্যাচের স্কোয়াডে না রাখা হলেও শেষ ম্যাচের স্কোয়াডে তাকে আবারও ডাকতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। কেননা তার বদলি ক্রিকেটার হিসেবে যাদের স্কোয়াডে রাখা হয়েছে তাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সের গ্রাফটা নিম্নমুখী। যদি প্রথম দুই ম্যাচে কায়েসের বদলি ক্রিকেটাররা পারফর্ম না করতে পারেন তাহলে হয়তো শেষ ম্যাচে আবারও দেখা যেতে পারে বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানকে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment