৭ নাম্বারে ব্যাটিংয়ের জন্য যে ২ জনকে ঠিক করলো কোচ রাসেল ডমিঙ্গো

বেশ অনেকদিন ধরেই জাতীয় দলে অনিয়মিত মোসাদ্দেক হোসেন। এই স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ২০১৯ সালের জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

তিনি আবারও ডাক পেয়েছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আসন্ন তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দলে। সিরিজ শুরুর আগেরদিন মোসাদ্দেককে দলে নেয়ার ব্যাখ্যা দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

তিনি জানিয়েছেন, সাত নম্বরে তারা এমন একজনকে চাচ্ছিলেন যিনি ব্যাটিংয়ের সঙ্গে স্পিন বোলিংটাও করতে পারেন। সেই ভাবনাতেই মোসাদ্দেককে ডাকা হয়েছে।

শুধু মোসাদ্দেকই নন এই জায়গার জন্য বিবেচনায় আছেন আফিফ হোসেন ধ্রুবও। ডমিঙ্গো বলেন, ‘আমরা সাত নম্বরের জন্য এমন কাউকে চাচ্ছিলাম যে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি স্পিন পারবে। আফিফ, মোসাদ্দেক এই ভাবনা থেকেই।’

বেশ কিছুদিন ধরেই সৌম্য সরকারকে ফিনিশার হিসেবে তৈরি করার চেষ্টা করছে বাংলাদেশ। তবে এই সিরিজে তাকে টপ অর্ডারে দেখা যেতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন ডমিঙ্গো। সেক্ষেত্রে ম্যাচ শেষ করে আসার দায়িত্ব থাকবে মোসাদ্দেক বা আফিফের কাছে।

টাইগার কোচ বলেন, ‘সৌম্য পেস বোলিং পারে, সে টপ অর্ডারেও আসতে পারে। মোসাদ্দেক লোয়ার মিডল অর্ডারে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। সে এমন কেউ যে ম্যাচ শেষ করে আসতে পারবে, ভালো ফিল্ডার, বোলিং-ব্যাটিং পারে, ভালো প্যাকেজ।’

চোটের কারণে সদ্য সমাপ্ত শ্রীলঙ্কা সফরের টেস্ট দলের বিবেচনায় ছিলেন না মোসাদ্দেক। এর আগে নিউজিল্যান্ড সফরে এই পায়ের চোট বাধিয়েছিলেন তিনি।

এর ফলে খেলতে পারেননি ওয়ানডে সিরিজের কোনো ম্যাচে। টি-টোয়েন্টি সিরিজেও খেলেছে ন কেবল শেষ ম্যাচে। দেশে ফেরার পর আবার বেড়ে যায় তার পায়ের সমস্যা। অবশ্য এখন তিনি মাঠে নামার জন্য তৈরি।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment