ব্যাট হাতে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে এই দুইজনকে বেছে নিলেন তামিম

আগামীকাল ২৩ মে থেকে সফরকারী শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের। এই সিরিজ সামনে রেখে গতকাল ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের প্রত্যাশার কথা বলেছেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল খান।

২০১৯ সালের আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পরপরই শ্রীলংকা সফরে তামিমের নেতৃত্বে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সেবার ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছে টাইগাররা।

আবারও তামিমের নেতৃত্বে তাদের বিপক্ষে আরেকটি তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ দল। এবার ঘরের মাঠে প্রতিশোধ নেওয়ার পালা। তবে ব্যাপারটি ঠিক এভাবে দেখছেন না তামিম।

তিনি বলেন, ‘প্রতিশোধের বিষয়টা আমি ওইভাবে দেখি না। আমার কাছে মনে হয় এটা দারুণ সুযোগ, আমাদের বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে হবে। বিশ্বকাপের সুপার লিগ যে চলছে, এটার পয়েন্ট পাওয়ার জন্য। আমার কাছে মনে হয়, আমরা খুব বেশি হোম সিরিজ খেলব না, এটা আমাদের জন্য একটা বড় চ্যালেঞ্জ।

এই চ্যালেঞ্জে যেন আমরা সফল হতে পারি, ম্যাক্সিমাম পয়েন্ট তোলা এই সিরিজ থেকে। এভাবে বিষয়টা দেখছি। আমার কাছে মনে হয় না যে প্রতিশোধ নিতে হবে। এটা ক্রিকেট ম্যাচ। আমার দল শতভাগ দিয়ে খেলবে।’

ব্যাটিংয়ের ধরন প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ‘আমি আমার ব্যাটিং অ্যাপ্রোস নিয়ে অনেক কথা বলেছি অনেক বার। এটা কখনো বন্ধ হবে না। প্রশ্ন আসতেই থাকে। আমি কোন অ্যাপ্রোসে খেলব? আমি যে অ্যাপ্রোসে চার-পাঁচ বছর ধরে খেলে আসছি, আমি সেই অ্যাপ্রোসেই খেলতে থাকব; কারণ আমি সফল হচ্ছি।

এটা নিয়ে আসলে আমার ভবিষ্যতেও কোনো কিছু বলার নেই। এ নিয়ে অনেক কথা বলেছি। সবাইকে অনুরোধ করছি- ভবিষ্যতে যেন এমন প্রশ্ন কেউ না করেন।’

সাকিব আল হাসান দলে ফিরেছেন। তিনি তিন নম্বর ব্যাটিং পজিশনেই খেলবেন বলে জানান তামিম। বিশ্বকাপে এই পজিশনে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স দেখান সাকিব। এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের কাছে প্রত্যাশা অনেক থাকবে। তামিম বলেন, ‘সাকিব বিশ্বকাপে যা করেছে, এটা ছিল অসাধারণ। ওই ধরনটি আমি চাইব, ও চাইবে।

তবে ওই লেভেলের পারফরম্যান্স সব সময় করা কিন্তু সম্ভব না। একটা ছেলে প্রায় আট-নয় ম্যাচে ছয়শ রান করেছে- এটা আমরা দেখি বিশ্ব ক্রিকেটে। যদি ওই ধরনের পারফরম্যান্স না হয়, এখানে কোনো টেনশনের ব্যাপার নেই, কিছু নেই। আমি বিশ্বাস করি, সে ভালো করবে।’

Advertisements
Advertisements

সিরিজে বোলারদের কাছে অনেক প্রত্যাশা থাকবে। তামিম জানান, আমি চাই তারা অনেক ভালো করুক। বোলিং একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আমার কাছে মনে হয় ম্যাচ জিততে হলে ভালো বোলিং করতে হবে। অনেক সময় দেখা যায় যে, ভালো ব্যাটিং করেও যদি বোলিংয়ে ভালো না করতে পারেন, তা হলে ম্যাচ জিততে পারবেন না।

কিছু ক্ষেত্রে দেখা যাবে আমরা ভালো ব্যাটিং করিনি; কিন্তু আমরা খুবই ভালো বোলিং করেছি। এই ক্ষেত্রে কিন্তু ম্যাচ জিতে যেতে পারেন। বোলিংটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ আমাদের কাছে। আমরা ভাগ্যবান যে, গত সিরিজে সাকিব ছিল না, এবার সে আছে; মোস্তাফিজও ফিরেছে। এটি আমাদের একটি ইতিবাচক দিক। তাসকিন অসাধারণ ভালো বোলিং করছে।

মিরাজ বিশ্ব র‌্যাংকিংয়ে টপ ফাইভে ওয়ানডেতে। আমি আশা করছি সবাই ভালো করবে। এ সিরিজ আমাদের কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ- এটা আমার বলার দরকার নেই; কারণ সবাই জানি এই সিরিজ আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে ঘরের মাটিতে খেলব। শুধু বোলিং নয়, ব্যাটিং ও ফিল্ডিং- সব কিছুতেই আমাদের এগিয়ে থাকতে হবে।’

আগের মোস্তাফিজকে পাওয়া যাবে কিনা? তামিম বলেন, ‘যে ধরনের বোলিং সে করেছে আইপিএলে, তা দেখে আমরা খুশি। আমরা চাই- সে ওই লেভেলের বোলিং সব সময় করুক। এটাও বুঝতে হবে, সে উইকেট থেকে সহায়তা পেয়েছিল। অসাধারণ বোলিং সে করেছে- এ নিয়ে সন্দেহ নেই। আশা করি, সে ধারাবাহিক এই রকম বোলিং করবে বাংলাদেশের হয়ে।’

লিটন, মিরাজ, সৌম্যদের কাছে প্রত্যাশা কী থাকবে? তামিমের মতে, মিরাজ দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে যাচ্ছে। লিটন ও সৌম্যরা আসন্ন সিরিজে ভালো পারফরম্যান্স উপহার দেবেন বলে মনে করেন তামিম। ওয়ানডে সিরিজে উইকেটের পেছনে দাঁড়াবেন মুশফিক। অভিজ্ঞ এই উইকেটরক্ষক ও ব্যাটসম্যান প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ‘আমি ওর উইকেটকিপিং নিয়ে খুবই খুশি।

ক্যাচ মিস বা সুযোগ হাতছাড়া করা- এগুলো খেলার অংশ। সত্যি কথা বলতে, আমি জানি সে কতটা কঠোর পরিশ্রম করে। আমার কোনো অভিযোগ নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের টিম ম্যানেজমেন্ট, কোচ, অধিনায়ক- কারও একটা মিনিটের জন্যও সংশয় নেই যে, সে প্রথম ওয়ানডেতে কিপিং করবে।

সে অবশ্যই শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে কিপিং করবে। শুধু প্রথমটায় নয়, পুরো সিরিজেই করবে। আমি নিশ্চিত, সে ভালো করবে।’ নাজমুল হোসেন শান্তকে দলের বাইরে রাখার ব্যাপারে তামিম বলেন, ‘আমার মনে হয় না, ধৈর্য হারিয়ে ফেলেছি। সে আটটি ওয়ানডে খেলেছে, দুর্ভাগ্যবশত যে পারফরম্যান্স তার কাছ থেকে আশা করেছি, তা পাইনি।’

অন্যদিকে কেমন হতে পারে মিরপুরের উইকেট? এ প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ‘আমরা টিম ম্যানেজমেন্টকে একটি পরিষ্কার বার্তা দিয়ে দিয়েছি, যারা উইকেটের দায়িত্বে আছেন। বার্তা দিয়েছি কোন ধরনের উইকেট চাই আমরা। আশা করি, আমরা ওই ধরনের উইকেটই পাব।’

Related Post