মুস্তাফিজুর সবকিছু আল্লাহর হাতে ছেড়ে দিলেন! কারন কী?

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অ্যাওয়ে সিরিজে দলে ছিলেন না মোস্তাফিজুর রহমান। তবে ছোট বিরতির পর লঙ্কানদের বিপক্ষে হোম সিরিজে জাতীয় দলের জার্সিতে ফিরেছেন কাটার মাস্টার।

আইপিএল খেলতে গিয়ে লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ছিলেন না মোস্তাফিজ। মঙ্গলবার ১২ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে গতকাল অনুশীলনে ফিরেছেন তিনি। এ্রর আগের সময়টায় ছিল না অনুশীলন। হোটেল বন্দী জীবন কাটাতে কাটাতে একঘেয়েমি চলে আসাটাই স্বাভাবিক।

টাইগার কাটার মাস্টারের কথাতে বিরক্তির ছাপ স্পষ্ট। যদিও এমন জীবন কাটছে গত দুই বছর ধরেই। বুধবার ছিল শ্রীলঙ্কা সিরিজের জন্য দ্বিতীয় দিনের অনুশীলন। এদিন গণমাধ্যমের সামনে এসে জানিয়েছেন, কোয়ারেন্টিনে থাকতে থাকতে বিরক্ত তিনি।

“শেষ দুই বছর শুধু আমার জন্য না, সবার জন্যই খুব কষ্টকর এই বায়োবাবল।” গত ২৫ দিনে একদিন প্র্যাক্টিস আর একটা ম্যাচ খেলতে পেরেছিলেন মোস্তাফিজ। এরপর ১৯ দিন ধরেই শুয়ে বসে দিন কাটছে। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে মাঠে নামার আগে সুযোগ হচ্ছে তিন দিনের অনুশীলন আর একটা অনুশীলন ম্যাচ খেলার।

class="tie-appear" src="https://i.imgur.com/Hjjwsnc.jpg" />

মোস্তাফিজ মনে করেন, এতে করে প্রথম ম্যাচেই ভালো কিছুর প্রত্যাশা করা সম্ভব না। “আমি আইপিএলে থাকাকালীন আইপিএল আর আমাদের দেশে রুম কোয়ারেন্টিন দিয়ে প্রায় ২৫ দিনে একটা প্র্যাক্টিস আর একটা ম্যাচ খেলছি।

এদিকে ১৪ ওদিকে ৫। টানা উনিশ দিন যদি কিছু না করি, রুমের ভেতর থাকি। টুকটাক যেগুলা করা যায় ওগুলা করে যদি প্রথম দিনেই কিছু ভাবি তাহলে তো হওয়ার কথা না। আমি চেষ্টা করছি, আজকে প্রথম সুযোগ পেলাম। এমনি হাতে ব্যথা লাগতে পারে। কি বলে, বুঝেতে পারতেসি না।”

তবে সবকিছু আল্লাহর উপর ছেড়ে দিয়েছেন টাইগার পেসার। “আমি আর সাকিব ভাই দুজনেই ওরকম ছিলাম। তিন দিনে কালকে তো প্র্যাক্টিস করতে পারি নাই, আজকে করলাম। আরও দুই দিন সময় পাব। আল্লাহর ওপরে ছেড়ে দিলাম। দেখি চেষ্টা করে কি হয়।”

Related Post