বিশেষ অনুরোধে মুক্তি পেলেন সাকিব-মোস্তাফিজ!

শেষ মুহূর্তে এসে সরকারের মন গলাতে পেরেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) খেলে ভারত থেকে ফেরায় ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে যেতে হয় সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমানকে।

তবে ঘরের মাঠে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজের অনুশীলনে এই দুই ক্রিকেটারকে পাওয়ার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে আবেদন করেছিল বিসিবি। তাতে শুরুতে সাড়া মেলেনি। অবশেষ ১২ দিন পর মুক্ত হলেন সাকিব-মুস্তাফিজ। মঙ্গলবার (১৮ মে) থেকেই অনুশীলন শুরু করবেন তারা।

তবে কোয়ারেন্টিন থেকে মুক্তি মিললেও এখনই তাদের পরিবারের কাছে ফেরা হচ্ছে না। তাও এই কোয়ারেন্টিন হবে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে, নিভৃতে; হোম কোয়ারেন্টিনের সুযোগ নেই। তবে সাকিব ও মুস্তাফিজ আইপিএলে জৈব সুরক্ষা বলয়ে ছিলেন বলে শুরু থেকেই তাদের প্রটোকল শিথিলের আবেদন জানিয়ে আসছিল বিসিবি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চিকিৎসক মনজুর হোসাইন চৌধুরী বলেন, ‘আমরা সরকারের কছ থেকে মৌখিক অনুমোদন পেয়েছি। গতকাল রাতেই লিখিত আকারে পাওয়ার কথা ছিল, কিন্তু সেটি এখনো আমাদের হাতে এসে পৌঁছায়নি।

আশা করছি সকালের মধ্যেই পেয়ে যাব। তবে যে অনুমতি পেয়েছি, তাতে সাকিব আর মুস্তাফিজ আজ থেকেই অনুশীলন শুরু করবেন।’ আইপিএল মাঝপথে স্থগিত হয়ে যাওয়ায় গত ৬ মে বাংলাদেশে ফিরে আসেন সাকিব আর মুস্তাফিজ।
তবে বাড়ি ফেরার সুযোগ পাননি তারা। ভারত থেকে আসায় দুজনকেই হোটেল কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়। সে হিসেবে আগামী ১৯ মে ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন শেষ হওয়ার কথা।

তবে জাতীয় স্বার্থে এই দুই ক্রিকেটারের কোয়ারেন্টাইন প্রক্রিয়া শিথিল করতে সরকারের সঙ্গে দেনদরবার চালিয়ে যায় বিসিবি। শেষ মুহূর্তে এসে তার ফল মেলেছে। দুদিন আগেই মুক্ত হয়েছেন সাকিব আর মুস্তাফিজ।

তবে সুরক্ষা বলয়ের মধ্যেই থাকতে হচ্ছে তাদের। আজই জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্পে যোগ দেবেন দুজন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের স্কোয়াডে নাম থাকায় এদিন অনুশীলন শেষ করে আবার হোটেলে উঠবেন তারা।

লঙ্কানদের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে আগামী ২৩ তারিখ। দ্বিতীয় ম্যাচটি ২৫ মে এবং শেষ ম্যাচটি মাঠে গড়াবে আগামী ২৮ মে। দিবারাত্রির তিনটি ম্যাচই হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment