লা লিগায় চলতি মৌসুমে ১০টি বিতর্কিত হ্যান্ডবল

স্প্যানিশ লা লিগায় সর্বশেষ রিয়াল মাদ্রিদ এবং সেভিয়ার মধ্যকার ম্যাচে বিতর্কিত এক হ্যান্ডবলের সিদ্ধান্ত দিয়েছে রেফারি। রিয়াল মাদ্রিদ ডিফেন্ডার এডার মিলিটাও এর বিরুদ্ধে এক পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি যা নিয়ে চলছে বিতর্ক।

অনেকেই মনে করছেন যে এটা কোন ভাবেই হ্যান্ডবল হতে পারে না। কেননা এটা ইচ্ছাকৃত ছিল না। কিন্তু রেফারি সিদ্ধান্ত নেন পেনাল্টির।

কেবল এটাই নয় এর আগেও এবারের লা লিগায় বেশ কিছু বিতর্কিত সিদ্ধান্ত দিতে দেখা গেছে। এক নজরে দেখা যাক সেই সিদ্ধান্তগুলো:-

৩৪ তম ম্যাচ: সেভিয়া বনাম অ্যাতলেটিকো বিলবাওয়ের মধ্যকার ম্যাচে দ্বিতীয়ার্ধে জেসুস নাভাসের একটি ক্রস বিলবাওয়ের বালেঞ্জিয়ার হাতে লাগে। কিন্তু এবার রেফারি পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেননি। এমনকি ভিএআর দিয়েও চেক করেনি।

৩২ তম ম্যাচ: রিয়াল মাদ্রিদ বনাম রিয়াল বেতিসের মধ্যকার ম্যাচে বেতিসের হুয়ান মিরান্ডার হাতে বল লাগলেও পেনাল্টি দেয়া হয়নি রিয়াল মাদ্রিদকে।

২৬ তম ম্যাচ: রিয়াল মাদ্রিদ বনাম অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের মধ্যকার ম্যাচে প্রথমার্ধে ফিলিপের হাতে বল লেগেছিল। কিন্তু রেফারি সেটাতে কর্নপাতই করেনি।

২৩তম ম্যাচ: বার্সালোনা বনাম রিয়াল ভ্যালোদলিদের এই ম্যাচটি চলতি মৌসুমে অন্যতম বিতর্কিত ম্যাচ ছিল। একের পর এক সিদ্ধান্ত গিয়েছিল ভ্যালোদলিদের বিপক্ষে। ওই ম্যাচেই জর্দি আলভার হাতে বল লাগে যা রেফারি এড়িয়ে যান।

২১তম ম্যাচ: কাদিজ বনাম অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের মধ্যকার এই ম্যাচে কোকের হাতে বল লেগেছিল। কোকে হঠাৎ পরে যাওয়ায় বলটি হাতে লাগে। কিন্তু রেফারি সেটা পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন।

১৮তম ম্যাচ: রিয়াল মাদ্রিদ বনাম অ্যাতলেটিকো বিলবাওয়ের মধ্যকার এই ম্যাচটিতে বিলবাওয়ের আন্দের কেপার হাতে বল লাগে। কিন্তু সেটাও এড়িয়ে যান রেফারি।

১৪তম ম্যাচ: এইবার বনাম রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যকার ম্যাচে ৮২ মিনিটে সার্জিও রামোসের হাতে বল লাগে। কিন্তু রেফারি সেটাও এড়িয়ে যান।

১৩তম ম্যাচ: লেভান্তে ও বার্সালোনার মধ্যকার এই ম্যাচে বার্সা তারকা স্যামুয়েল উমিতির হাতে বল লেগেছিল। কিন্তু তাতে কোন লাভ হয়নি লেভান্তের।

১১তম ম্যাচ: আলাভেস এবং রিয়াল মাদ্রিদের মধ্যকার ম্যাচে নাচোর বাহুতে বল লেগেছিল। কিন্তু রেফারি সেটা পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দিয়ে দেন।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment