টাকা দেবেন না প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে, স্পস্ট জানিয়ে দিলেন কামিন্স

ভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। প্রতিদিন হাজারে হাজারে মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন। এমন একটা ভয়াবহ পরিস্থিতির দিকে তাকিয়ে কেকেআর দলের জোরে বোলার প্যাট কামিন্স ঠিক করেছিলেন যে তিনি পিএম কেয়ার্স ফান্ডে আর্থিক অনুদান করবেন।

এই তো মাত্র কয়েকদিন আগের কথা! অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটার প্যাট কামিন্স একটি বিশেষ কারণে গোটা বিশ্বের প্রশংসা কুড়িয়ে নিয়েছিলেন। বর্তমানে ভারতে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের হয়ে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ খেলছেন কামিন্স। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতের প্রত্যেকটা রাজ্য যেভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে, তা দেখে তিনি পিএম কেয়ার্স ফান্ডে ৫০,০০০ মার্কিন ডলার আর্থিক অনুদান দেবেন বলে ঠিক করেন।

তাঁর এই মহৎ পদক্ষেপ এবং অত্যন্ত কঠিন সময়ে ভারতের দিকে হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কারণে সকলেই তাঁকে যথেষ্ট প্রশংসা করেছিলেন। কিন্তু, আজ গোটা ব্যাপারটা যেন একেবারে ১৮০ ডিগ্রি ঘুরে গেল। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে ভারতের পিএম কেয়ার্স ফান্ডে তিনি টাকা দেবেন না। বরং সেই আর্থিক অনুদান তিনি অস্ট্রেলিয়ার UNICEF-কে দেবেন বলে জানিয়েছেন। ভারতের এই কঠিন সময়ে অস্ট্রেলিয়ার এই সংগঠণ যথেষ্ট সাহায্য করছে।

সত্যি কথা বলতে কী, ভারতের এই কঠিন সময়ে বহু নামীদামি ব্যক্তিত্ব এবং সংস্থা চিকিৎসার সামগ্রী জোগাড় করতে এগিয়ে আসছেন। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াও ভারতকে সাহায্য করতে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে যে এই কঠিন সময়ে তারা ভারতকে যতটা সম্ভব সাহায্য করবে। তবে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার অ্যাসোসিয়েশন এবং UNICEF অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে তাঁরা এই দায়িত্ব পালন করবে।

তারা যতটা পরিমাণ অর্থ সংগ্রহ করতে পারবে, সেটা বিভিন্ন চিকিৎসার সামগ্রী এবং অক্সিজেন সিলিন্ডার কেনার জন্য ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হবে। তবে ভারতের এই কঠিন পরিস্থিতিতে পিএম কেয়ার্স ফান্ডে একটা বিশাল অঙ্কের আর্থিক অনুদান করার কথা ঘোষণা করে যেমন সকলের প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন, তেমন সমালোচনাও জুটেছিল কপালে।

অনেকেই একথা মনে করেছিলেন যে পিএম কেয়ার্স ফান্ডে দেওয়া এই আর্থিক অনুদান সঠিকভাবে ব্যবহার করা হবে না। যাদের সত্যিই এই টাকার প্রয়োজন, তাঁরা সেটা পাবেন না। সেকারণেই কামিন্সের এই মনোভাব বদল হয়েছে।
দেখে নিন কামিন্সের সাম্প্রতিকতম ঘোষণা

আজ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে কলকাতা নাইট রাইডার্সের খেলার কথা ছিল। কিন্তু কেকেআর শিবিরে করোনা ভাইরাস থাবা বসানোর কারণে সেই ম্যাচ আপাতত স্থগিত করা হয়েছে। সন্দীপ ওয়ারিয়র এবং বরুণ চক্রবর্তীর শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি টের পাওয়া গেছে। তাঁদের দুজনকে আপাতত পৃথকবাসে রাখা হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, প্যাট কামিন্সও নাকি কোভিড পজ়িটিভ।

চলতি আইপিএল মরশুমে কলকাতা নাইট রাইডার্স দলের পারফরম্যান্স নিয়ে যদি আলোচনা করতে হয়, তবে তা একেবারেই সন্তোষজনক নয়। সাতটার মধ্যে মাত্র দুটো ম্যাচ তারা জিততে পেরেছে। পয়েন্ট টেবিলে রয়েছে সপ্তম স্থানে

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment