৪ ম্যাচ খেলে সাকিবের ১ ম্যাচের অর্ধেক রানও করতে পারেনি নারিন, একাদশে আসতে পারেন সাকিব

আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে আইপিএলের লড়াইয়ে মুখোমুখি দিল্লি ক্যাপিটালস আর কলকাতা নাইট রাইডার্স। ম্যাচে টস জিতে কলকাতাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দিল্লি অধিনায়ক রিষভ পন্ত। আর ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ৩ ওভার ভালোই মোকাবিলা করেছে কলকাতা।

কিন্তু চতুর্থ ওভারে অক্ষর প্যাটেলের চতুর্থ বলে উইকেটরক্ষককে ক্যাচ দিয়ে ১৫ রানে থামেন ওপেনার নিতিশ রানা। এরপরই ব্যাটিংয়ে শুবমান গিলের সঙ্গে হাল ধরেন রাহুল ত্রিপাটি। দুজনে মিলে কোনো বিপদ এড়িয়ে ৬ ওভার খেলেন। দশম ওভারে ত্রিপাটিকে থামিয়ে দেন মার্কুস স্টইনিস।

ডিপ কভারে ললিত যাদবের হাতে তালুবন্দি হন তিনি।১৭ বলে ১৯ রান করেন ত্রিপাটি। ত্রিপাটির ক্যাচ তুলে নিয়ে হয়ত মন ভরেনি ললিতের। পরবর্তী ওভার তিনি বল করেন। আর ওই ওভারে শূন্য রানে ফেরান কলকাতার দুই নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড়কে।

Advertisements
Advertisements

অধিনায়ক এইউন মরগান ও সাকিবের বদলে নেওয়া স্পিনার সুনীল নারিন রানের খাতা খুলতেই পারেননি। ১০ম ওভারে ললিতের দ্বিতীয় বলে লং অফে ক্যাচ তুলে দেন মরগান, যা সহজে লুফে নেন স্মিথ। একই ওভারে চতুর্থ বলে ক্যারিবীয় সেনসেশন সুনীল নারিনকে বোল্ড করেন ললিত।

১ বল মোকবিলা করেই প্যাভিলিয়নে ফিরলেন নারিন। নারিন ৪ ম্যাচে মোট ১০ রান করেছে। আর অন্যদিকে সাকিব তার শেষ ম্যাচে করেছিল ২৬ রান। নারিন এখন পর্যন্ত ৪ ম্যাচ খেলে সাকিবের অর্ধেক রানও করতে পারেনি। নারিনের এমন ব্যর্থ পারফর্ম্যান্স সাকিবকে আবার একাদশে ফিরিয়ে আনতে পারে।

কলকাতার এমন দুঃসময়ে হাল ধরেন ক্যারিবিয় দানব আন্দ্রে রাসেল। তিনি মাত্র ২৭ বলে ৪ ছক্কায় ৪৫ রান করেন। রাসেলে ব্যাটে ভর করে কলকাতা ২০ ওভারে ১৫৪ রান করতে সক্ষম হয়।

Related Post