অবশেষে সবাইকে অবাক করে কলকাতার অনেক বড় দায়িত্ব পাচ্ছেন সাকিব আল হাসান!

লড়াইটা ছিল টেবিলের তলানিতে থাকা দুই দলের। কিন্তু ম্যাচের পর ম্যাচ চলে গেলেও কলকাতা নাইট রাইডার্সের ভাগ্য যেন বদলালো না। শনিবার অষ্টম স্থানে থাকা রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে হেরেছে ইয়ন মরগানের দল। ৭ উইকেটের জয় তুলে নিয়ে কলকাতাকে সবার নিচে নামিয়ে দিয়েছে সঞ্জু স্যামসনের দল।

মুম্বাইয়ের ওয়ানখেড়ে স্টেডিয়ামে আগের কয়েক ম্যাচে নিয়মিত বড় স্কোর পেয়েছে দলগুলো। কিন্তু এই ম্যাচে উইকেট যেন উল্টো কথা বলছিল। টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামা কলকাতা শুরু থেকেই রান বের করতে পারছিল না।

আইপিএলের গ্রুপ পর্বে নিজেদের ৫ ম্যাচের ইতি ঘটেছে সাকিব আল হাসানের কলকাতা নাইট রাইডার্সের। যেখানে প্রথম ম্যাচে জয়ের দেখা পেলেও শেষ ৪ ম্যাচে টানা হেরেছে নাইটরা। একের পর এক হারে বিপর্যস্ত কলকাতা এবার ঘুরে দাঁড়ানোর মিশনে মাঠে নামবে পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে প্রথম তিন ম্যাচ মাঠে নেমেছিলেন সাকিব আল হাসান। ব্যাট-বলে ভালো কিছু করার সুযোগ আসলেও সেটা খুব একটা কাজে লাগাতে পারেননি এই অলরাউন্ডার। ফলাফল ছিল একাদশ থেকে ছিটকে দেয়া।

সাকিবকে একাদশের বাইরে রেখে নাইটরা দলে নেয় সুনীল নারাইনকে। তবে ক্যারিবিয়ান এই তারকা ছিলেন সাকিবের চেয়ে আরও বাজে অবস্থায়। দুই ম্যাচের কোনোটাতেই নিজের রান নিয়ে যেতে পারেননি দুই অঙ্কের ঘরে। সেইসাথে বল হাতেও ছিলেন চরম ব্যর্থ। ফলে নারাইনকে আগামী ম্যাচে দলে রাখার ব্যাপারে নতুন করে ভাবতে পারে টিম ম্যানেজমেন্ট। যদি নারাইন একাদশ থেকে ছিটকে যান তাহলে পাঞ্জবের বিপক্ষে ম্যাচে সাকিব থাকছেন তা একপ্রকার নিশ্চিত।

শুধু নিশ্চিতই নাহ ইতিমধ্যে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার শেবাগ ও চেয়েছেন মরগানের অধিনায়কত্বে পরিবর্তন আসুক।যদি মরগান নাই থাকে অধিনায়ক বা তাকে বাদ করা হয় তবে কে হতে পারে নতুন অধিনায়ক? এটাই এখন বড় প্রশ্ন।

সে ক্ষেত্রে সবার আগে নাম আসতে পারে দীনেশ কার্তিকের, কারন নিয়মিত একাদশে তিনি হচ্ছে সবচেয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার।এছাড়াও অধিনায়ক হওয়ার দৌড়ে থাকতে পারে সাকিব আল হাসান, নিতিশ রানা কিংবা প্যাট কামিন্স। এখন দেখার বিষয় তারা কি অধিনায়কত্ব পরিবর্তন করে কিনা আর করলেই বা কে হয় নতুন অধিনায়ক।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment