অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম ২০২৩

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম জানতে চান? ঘরে বসে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার উপায় কি? এ সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন। তাহলে আপনি একজন ঠিক জায়গায় এসে পড়েছেন। আজকে আপনাদের সামনে নগদ একাউন্ট কিভাবে হালনাগাদ করতে হয় সে সম্পর্কে আলোচনা করব।

বাংলাদেশ ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন হলো নগদ। নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে আমরা টাকা আদান-প্রদান করে থাকি। আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই রয়েছেন যারা শুধুমাত্র ১৬৭ কোড ডায়ালের মাধ্যমে নগদ একাউন্ট তৈরি করেছেন।

আপনি যদি এরকম ভাবে নগদ একাউন্ট তৈরি করে থাকেন। তাহলে অবশ্যই আপনার নগদ একাউন্টের ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে হালনাগাদ করতে হবে। আপনার একাউন্ট যখন ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে খুলবেন। তখন কিন্তু একাউন্টটি অনেক বেশি নিরাপদ থাকবে। এ কারণে যারা ১৬৭ কোড ডায়াল করে নগদ একাউন্ট খুলেছেন, তাদের জন্য আজকের এই আয়োজন। চলুন নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম জেনে নেই।

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম ২০২৩

অনেকেই ভাবেন নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার জন্য কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে যোগাযোগ করতে হয়। তবে এটা সম্পূর্ণ একটি ভুল ধারণা। আপনি ইচ্ছে করলে ঘরে বসেই নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করতে পারবেন।

নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার আগে, একটি ভোটার আইডি কার্ড হাতে নিতে হবে। যে ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে ইতিপূর্বে কোনো নগদ একাউন্ট তৈরি করা হয়নি। এছাড়াও একটি স্মার্টফোন ও ইন্টারনেট কানেকশন লাগবে। ঘরে বসে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম নিম্নরূপ।

অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম

অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার জন্য গুগল প্লে-স্টোর থেকে আপনাকে নগদ অ্যাপ ইন্সটল করতে হবে। যদি ইনস্টল না থাকে তাহলে এখনই ইন্সটল করি নিন। চলুন দেখে নেই অ্যাপ দিয়ে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম কি।

  • যে মোবাইল নাম্বার দিয়ে নগদ একাউন্ট তৈরি করেছিলেন, সেই মোবাইল নাম্বার ও পিন নাম্বার দিয়ে নগদ অ্যাপে লগইন করুন।
  • এখন আপনার সামনে নগদ অ্যাপের ফিচার চলে আসবে। নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার জন্য “My Nagad” অপশনে ক্লিক করুন।
  • My Nagad অপশনে ক্লিক করার পর, অনেকগুলো অপশন আসবে। এখান থেকে “কেওয়াইসি পুনরায় জমা দিন” এ ক্লিক করুন।
  • তারপর আপনার সামনে ভোটার আইডি কার্ডের মতো ফিচার আসবে। এখন ভোটার আইডি কার্ডের সামনের অংশের ছবি ও পিছনের অংশের ছবি ভালোভাবে তুলতে হবে। ছবি তোলার পর পরবর্তী অপশনে ক্লিক করুন।
  • ভোটার আইডি কার্ড জমা দেওয়ার পর, যে ব্যক্তির ভোটার আইডি কার্ড তার ছবি তুলতে হবে। ছবি তোলার পর সকল তথ্য ঠিক থাকে তাহলে আপনাকে পরবর্তী অপশনে নিয়ে আসবে।
  • যদি আপনার জমা দেওয়া সমস্ত ডকুমেন্ট সঠিক থেকে থাকে। তাহলে তারা আপনার একাউন্ট ভেরিফাই করে নিবে।

উপরে উল্লেখিত ধাপগুলো অনুসরণ করে সহজেই ঘরে বসে নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করতে পারবেন। এছাড়াও নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করতে যদি কোন সমস্যা হয়। তাহলে কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে যোগাযোগ করতে পারেন।

শেষ কথা

আশা করি, নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করার নিয়ম সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। খুব সহজ পদ্ধতির মাধ্যমে ঘরে বসেই নিজেই নগদ একাউন্ট হালনাগাদ করতে পারবেন। তো বন্ধুরা, আজকের আর্টিকেল কেমন লাগলো তা কমেন্ট করে জানাবেন।