একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায়

একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায়

একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায়ঃ বর্তমানে সময়ের জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং সেবা হল বিকাশ। দীর্ঘদিন যাবৎ বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে আমরা টাকা লেনদেন করে থাকি। এছাড়াও বিদ্যুৎ বিল, মোবাইল রিচার্জ ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছেন বিকাশ একাউন্টে।

তবে উপরোক্ত সুবিধা সমূহ ভোগ করার জন্য অবশ্যই আপনার একটি বিকাশ একাউন্ট খুলতে হবে। তবে বিকাশ একাউন্ট খোলা নিয়ে আমাদের কমন কিছু প্রশ্ন একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায় ও এনআইডি কার্ড ছাড়া কি বিকাশ খোলা যায় ইত্যাদি।

আজকে এ সম্পর্কিত সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো। তাই আপনি যদি একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায় তা সম্পর্কে সঠিক তথ্য জানতে চান। তাহলে আজকের আর্টিকেল শুধুমাত্র আপনার জন্য।

একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায়?

আমরা অনেকেই মনে করি, একটি এনআইডি কার্ড দিয়ে একাধিক বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়। তবে সত্যিকারঅর্থে একটি এনআইডি দিয়ে শুধুমাত্র একটি মাত্রই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। কারণ একটি এনআইডি দিয়ে যদি একাধিক বিকাশ একাউন্ট খোলা যেত। তাহলে গ্রাহকের বিকাশ একাউন্ট অনিরাপত্তায় থাকতো।

সচরাচর সবারই বিকাশ একাউন্টে হাজার হাজার টাকা থাকে। এ কারণে বিকাশ কর্তৃপক্ষ সবসময় আপনার অ্যাকাউন্ট যাতে নিরাপদ থাকে সে ব্যবস্থাই করবে। এ কারণেই একটি এনআইডি দিয়ে একাধিক বিকাশ একাউন্ট খোলার কোন ব্যবস্থা নেই।

আইডি কার্ড ছাড়া বিকাশ একাউন্ট খোলা যাবে?

কোনভাবেই ভোটার আইডি কার্ড ছাড়া আপনি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন না। বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য অবশ্যই একটি এনআইডি কার্ডের দরকার। ভোটার আইডি কার্ড, পাসপোর্ট ও জন্ম নিবন্ধন কাগজের মাধ্যমে বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়।

তাই আপনি যদি বিকাশ একাউন্ট খুলতে চান। তাহলে ভোটার আইডি কার্ড বা পাসপোর্ট অথবা জন্ম নিবন্ধন সনদ লাগবে। আপনি যখন ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে বিকাশ একাউন্ট তৈরি করবেন। তখন বিকাশ একাউন্ট নিরাপদ থাকবে।

পাসপোর্ট দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলা যাবে?

আমাদের বেশিরভাগ মানুষের ভোটার আইডি কার্ড থাকে না বা হারিয়ে যায়। আপনি ভোটার আইডি কার্ড ছাড়াও বিকাশ একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। এজন্য আপনার দরকার হলো পাসপোর্ট। পাসপোর্ট দিয়ে সহজেই বিকাশ একাউন্ট তৈরি করা যায়।

পাসপোর্ট দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য একটি সচল মোবাইল নাম্বার, দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, ভেরিফিকেশনের জন্য পাসপোর্ট মালিকের উপস্থিতি ও পাসপোর্ট এর ফটোকপি।

এই একটি কাগজপত্র নিয়ে সরাসরি বিকাশ কাস্টমার কেয়ার সেন্টার যোগাযোগ করুন। অথবা আপনার নিকটস্থ বিকাশ এজেন্ট শাখায় যোগাযোগ করে বিকাশ একাউন্ট খুলে নিন।

শেষ কথা

এই ছিল আজকে একটি এনআইডি দিয়ে কয়টি বিকাশ খোলা যায় তা নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা। মূলত একটি এনআইডি কার্ড দিয়ে একটি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। একটি এনআইডি কার্ড দিয়ে কখনোই একাধিক বিকাশ একাউন্ট খোলা সম্ভব না। তাই আপনার কাছে যদি একটি ভোটার আইডি কার্ড থাকে। তাহলে এখনই একটি বিকাশ এখন তৈরি করে নিন। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

You May Also Like