Iplhdh

মাত্র পাওয়াঃ আইপিএল নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন লিটন দাস!

আর মাত্র কয়েক দিন পর শুরু হবে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রাঞ্চাইজি টি-২০ টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল)। অনেক ক্রিকেটারই নিজেদের জাতীয় দলের খেলা শেষ করে দলের সাথে যোগ দিতে শুরু করেছেন। আর প্রথমবারের মত আইপিএলে খেলার সুযোগ পেয়েছেন বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার লিটন দাস। ৫০ লক্ষ রুপিতে এই ব্যাটারকে দলে ভিড়িয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। আর দলটির হয়ে মাঠে নামাকে বড় প্রাপ্তি হিসেবে দেখছেন তিনি। ভারতীয় এক দৈনিককে দেয়া সাক্ষাতকারে এমনটাই জানিয়েছেন লিটন।

কলকাতায় লিটন সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছেন সাকিব আল হাসানকে। সঙ্গে আন্দ্রে রাসেল ও সুনিল নারিনের মত তারকা ক্রিকেটাররাও আছেন। যাদের সঙ্গে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে ড্রেসিংরুম শেয়ার করেছেন লিটন। তাই কলকাতার ড্রেসিংরুমে নিজেকে দ্রুত মানিয়ে নিতে পারবেন বলে বিশ্বাস তার।

আইপিএলে ডাক পেলেও শুরু থেকেই খেলা হচ্ছে না লিটনের। আয়ারল্যান্ড সিরিজ চলায় বিসিবি এখনও এনওসি দেয়নি বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের। ৮ এপ্রিল শেষ আয়ারল্যান্ড-বাংলাদেশ টেস্ট, এরপরই কলকাতার হয়ে মাঠে নামতে পারবেন লিটন।

কলকাতায় সুযোগ পাওয়া তার ক্যারিয়ারের বড় প্রাপ্তি জানিয়ে ডানহাতি এই ব্যাটার বলেন, ‘আইপিএলে ডাক পাওয়ার অভিজ্ঞতা হুট করে বোঝানো কঠিন। তবে এক কথায় দুর্দান্ত অনুভূতি। তাছাড়া কলকাতায় সুযোগ পাওয়া আমার ক্যারিয়ারের জন্য বড় প্রাপ্তি। খুবই ভালো লেগেছিল। আমার জন্য বড় সুযোগ। একজন বাঙালি হিসেবে কলকাতা ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলব। এর চেয়ে বড় পাওয়া আর কি বা হতে পারে।’

ড্রেসিংরুমে নিজেকে মানিয়ে নেয়ার প্রসঙ্গে লিটন বলেন, ‘সাকিবভাই আমার স্বদেশীয়। একসঙ্গে বহু বছর খেলেছি আমরা। আর আন্দ্রে রাসেল ও সুনিল নারিনও আমার বহুদিনের পরিচিত। বিপিএলে আমরা একই ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলি।’

‘ফলে কেকেআরের অনেকের সঙ্গেই আমার যোগাযোগ রয়েছে। আইপিএলে খেলতে পারলে একজন ক্রিকেটার হিসেবে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করা যায়। ভারতে পৌঁছে কেকেআরের হয়ে খেলার মাধ্যমে সেই অভিজ্ঞতা অবশ্যই হবে আমার’ যোগ করেন তিনি।

এদিকে কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিটনকে নিয়ে একটি পোস্টে কলকাতা অধিনায়ক আখ্যা দিয়েছিল। নিয়মিত অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার চোটে থাকায় আসন্ন আসরে দলটির অধিনায়ক কে হবেন তা এখনও অনিশ্চিত।

নেতৃত্ব নেয়ার প্রসঙ্গে লিটন বলেছেন, ‘আমি এখনও বাংলাদেশে। আয়ারল্যান্ড সিরিজ চলছে আমাদের। ভারত বা কলকাতায় পৌঁছে দলের সঙ্গে যোগ দেয়ার পরই এসব দিয়ে কথা বলতে পারব। এতো দূর থেকে এসব এসব নিয়ে কথা বলা সম্ভব নয়।’