20230315 150248

রেফারির ওপর চটলেন রোনালদো দেখুন ভিডিও সহ

প্রায় প্রতি ম্যাচেই একের পর এক নেতিবাচক ঘটনার জন্ম দিচ্ছেন আল-নাসরের পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দল জিতলেও নতুন করে আবারও তিনি খবরের শিরোনামে এসেছেন। নানা কারণে মেজাজ হারাচ্ছেন তিনি। সর্বশেষ মঙ্গলবার (১৪ মার্চ) রাতে কিংস অফ চ্যাম্পিয়ন্সের ম্যাচে আভাকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে আল-নাসর।

এর আগের ম্যাচে সৌদি প্রো লিগের ম্যাচে রোনালদোর দল হেরে যায়। সেই ম্যাচের পর দলের হারের সঙ্গে আরও একটি হতাশা যোগ হয়েছিল তার। গ্যালারি থেকে প্রতিপক্ষ আল ইত্তিহাদের দর্শকরা মেসি মেসি চিৎকারে তাকে ক্ষেপিয়ে তোলেন। পরে নিজের ক্ষোভ ধরে রাখতে পারেননি রোনালদো। একাধিকবার মেজাজ হারানোর পর শেষমেষ মাঠ ছাড়ার সময় পানির বোতলে লাথি মেরে বসেন।

গতকাল রাতেও ফের মেজাজ হারিয়েছেন রোনালদো। দলের জয়ের দিনে ম্যাচ শুরুর মাত্র ১০ সেকেন্ডেই লিড নেয় আল-নাসর। পরবর্তীতে ২০ এবং ৪৯ মিনিটে তারা আরও দুটি গোল করে। তবে এদিন রোনালদো কোনো গোল পাননি। কিছুটা খোলস ছেড়ে বের হওয়ার চেষ্টা করলেও পরক্ষণেই তিনি নিষ্প্রভ হয়ে পড়েন। ম্যাচের প্রথমার্ধের বাঁশি বাজানোর পর তিনি ক্ষেপে যান রেফারির ওপর। এরপর রাগের বশে বল নিয়ে জোরে কিক মেরে বসেন। ফলস্বরূপ রোনালদোকে হলুদ কার্ড দেখান রেফারি।

ম্যাচের শেষ হওয়ার তখনও তিন মিনিট বাকি। সে সময় রোনালদোকে মাঠ থেকে তুলে নেন কোচ রুডি গার্সিয়া। দলের প্রধান তারকা সেটিও মেনে নিতে পারেননি। ডাগআউটে বসে হতাশায় মাথা নাড়তে থাকেন। পরে পুরো ম্যাচে রোনালদোর আচরণের ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। তবে ভক্তদের অনেকেই রোনালদোকে সান্ত্বনা দিয়েছেন। বলেছেন সতীর্থদের আরও সতর্ক হতে।

এক ভক্ত লেখেন, ‘রোনালদো, শান্ত থাকো। গোল পাওয়ার জন্যে তুমি বড্ড বেশি চিন্তাভাবনা করছ। মাথা ঠান্ডা রাখো। সতীর্থরা তোমাকে নিশ্চয়ই গোল করার অনেক সুযোগ করে দেবে।’ আরেকজন অবশ্য সতীর্থদের দায় নিয়ে প্রশ্ন তোলেন, ‘আল নাসরের বাকি ফুটবলারদের উচিত রোনালদোকে আরও ভাল পজিশনে বল বাড়ানো। তাকে গোল করার সুযোগ করে দেওয়া উচিত। গত কয়েক ম্যাচে ফুটবলারদের পাসিং খুব খারাপ হয়েছে। আরও বেশি পাস দেওয়া দরকার দলের সেরা স্ট্রাইকারকে।’

এর আগের ম্যাচে ইত্তিহাদের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে যায় রোনালদোর দল। এখানেই শেষ নয়। ম্যাচ হারের কারণে আল-নাসর টেবিলের শীর্ষস্থান থেকে নিচে নেমে যায়। ম্যাচ শেষে সমর্থকদের সান্ত্বনা দিতে গ্যালারির কাছে সতীর্থদের দিকে ছুটে যান রোনালদো। পরে একটু পরেই তিনি সেখান থেকে ফিরে আসেন। সে সময় এক সতীর্থ তাকে কিছু একটা বোঝাচ্ছিলেন। কিন্তু তাতেও তার রাগ কমেনি। উল্টো হাত নাড়াতে নাড়াতে বিরক্তি প্রকাশ করতে থাকেন তিনি। এরপর মেজাজ হারিয়ে ডাগআউট লাইনে রাখা পানির বোতলে জোরশে লাথি মারেন।

এভাবে এই ফুটবল তারকার মেজাজ হারানোর কারণ হিসেবে অনেকে বলছেন, গ্যালারি থেকে মেসির নামে কোরাস তোলায় বিরক্ত হয়েছেন রোনালদো। খেলা চলাকালেও দর্শকদের অনেকেই মেসির ছবি সম্বলিত পোস্টার প্রদর্শন করতে থাকেন। যা তার পরবর্তী আচরণে ফুটে উঠেছে।