Untitled design 2023 03 14T203504.665

ইংল্যান্ডকে ৩-০ তে হারিয়ে সিরিজ সেরা ও ম্যাচ সেরা হলেন যে ক্রিকেটার

১৫৯ রানের লক্ষ্যে ১৩ ওভার শেষে ১ উইকেটে ১০০ রান। এ ম্যাচে পরিষ্কার ফেবারিট ছিল ইংল্যান্ড। ক্রিজে ছিলেন দুই থিতু ব্যাটসম্যান ডেভিড ম্যালান ও জস বাটলার।

এরপরের ২ ওভারেই বদলে গেল চিত্রটা। ডেভিড ম্যালানকে ফেরালেন তাসকিন আহমেদ। জস বাটলার ঠিক পরের বলে রানআউট। আরেকবার পথ হারাল ইংল্যান্ড। আরেকবার দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনে ম্যাচ জিতল বাংলাদেশ।

১, ২, ৩—বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ধবলধোলাই! ওয়ানডে সিরিজে শেষ ম্যাচ জিতে ধবলধোলাই হওয়া আটকেছিল বাংলাদেশ, তবের পরের তিন ম্যাচ জিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ইংল্যান্ডকে সে স্বাদ দিল সাকিব আল হাসানের দল।

৩ ম্যাচের সিরিজে প্রতিপক্ষকে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ধবলধোলাই করল বাংলাদেশ, সর্বশেষ ২০১২ সালে আয়ারল্যান্ডকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল তারা।

হাসান মাহমুদ ও মিরাজ ছাড়া বাকিরা উইকেটের দেখা পেয়েছেন। তবে হাসান ডেথ ওভারে স্নায়ু ধরে রেখেছেন, মিরাজ তো ফিল্ডিংয়েও ছিলেন দারুণ। দারুণ ছিল সাকিবের অধিনায়কত্বও।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামা বাংলাদেশ পথ হারিয়েছিল শেষ ৫ ওভারে। সে সময়ে উঠেছিল মাত্র ২৭ রান। ইংল্যান্ড শেষ ৫ ওভারে তুলেছে ৩৪ রান, তবে যথেষ্ট হয়নি সেটিও।

বাংলাদেশ: ২০ ওভারে ১৫৮/২ (লিটন ৭৩, শান্ত ৪৭*, রনি ২৪, রশিদ ১/২৩, জর্ডান ১/২১)

ইংল্যান্ড: ২০ ওভারে ১৪২/৬ (ম্যালান ৫৩, বাটলার ৪০, তানভীর ১/১৭, তাসকিন ২/২৬, সাকিব ১/৩০, মোস্তাফিজ ১/১৪)

ফল—বাংলাদেশ ১৬ রানে জয়ী ও সিরিজ ৩-০-তে জয়ী

ম্যাচ সেরা: ৫৭ বলে ৭৩ রান করে ম্যাচ সেরা লিটন।

সিরিজ সেরা: তিন ম্যাচ টি-২০ সিরিজে ১৪৪ রান করে সিরিজ সেরা নাজমুল হোসেন শান্ত

বাংলাদেশ ৩, ইংল্যান্ড ০ :

শেষ ওভারে প্রয়োজন ২৭ রান। প্রথম বল লো ফুলটস, লং অফ দিয়ে চার ওকসের। দ্বিতীয় বলে অফ স্টাম্প বরাবর ব্লকহোলে, এবার পয়েন্ট দিয়ে চার। তৃতীয় বল অফ স্টাম্পের বাইরে স্লোয়ার, ব্যাটে বলে করতে পারেননি ওকস, বাই থেকে ১ রান। চতুর্থ বল একই লাইন, আবার মিস, আবার বাই থেকে ১ রান। পঞ্চম বল আবার স্লোয়ার, এবার আর বাইয়ের জন্যও দৌড়াননি ক্রিস ওকস। শেষ বলও ডট। বাংলাদেশ ১৬ রানে জয়ী, সিরিজ ৩-০-তে জয়ী!

ইংল্যান্ড একাদশ

ফিল সল্ট, ডেভিড ম্যালান, জস বাটলার (অধিনায়ক), বেন ডাকেট, মঈন আলী, স্যাম কারেন, ক্রিস ওকস, ক্রিস জর্ডান, আদিল রশিদ, রেহান আহমেদ ও জফরা আর্চার।

বাংলাদেশ একাদশ

লিটন দাস, রনি তালুকদার, নাজমুল হোসেন, তৌহিদ হৃদয়, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), শামীম হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, তানভীর ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ ও হাসান মাহমুদ।