356154

ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে যে ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ

আজ ইংল্যান্ডকে ২য় টি-২০ ম্যাচ ৪ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ। বাংলাদেশের টি-২০ ইতিহাসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ। টস হেরে আগে ব্যাটিং করে ইংল্যান্ড ১১৮ রানের টার্গেট বাংলাদেশকে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৭ বল হাতে রেখে ৪ উইকেটের বিশাল জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের ইনিংস বিবরণ:

সহজ লক্ষ্যে বাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি বাংলাদেশের দুই ওপেনার লিটন ও রনি। লিটন ১টি চারের সাহায্যে ৯ বলে ৯ রান করেন। রনি ১টি চারের সাহায্যে ১৪ বলে ৯ রান করেন। এরপর দলের হাল ধরেন শান্ত ও হৃদয়। ২টি চারের সাহায্যে ১৮ বলে ১৭ রান করেন। ২টি ছক্কার সাহায্যে ১৬ বলে ২০ রান করেন অলরাউন্ডার মিরাজ। তবে আজকে ডাক মরেন সাকিব। ২ বলে ৩ রান করেন আফিফ। ৩টি চারের সাহায্যে ৪৭ বলে ৪৬ রানের ম্যাচ জয়ী ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন শান্ত। ২টি চারের সাহায্যে ৩ বলে ৮ রান করে অপরাজিত থাকেন তাসকিন

জফরা আর্চার ৩টি, স্যাম কারান, মঈন আলি ও রেহান একটি করে উইকেট নেন।

ইংল্যান্ডের ইনিংস বিবরণ:

টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে শুরু থেকেই চাপে সফরকারী ব্যাটাররা। ৩টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ১৯ বলে ২৫ রান করেন ফিল সল্ট। ১টি চারের সাহায্যে ৮ বলে ৫ রান করেন ডেভিড মালান। ১টি চার ও ১টি ছক্কার মারে ১৭ বলে ১৫ রান করেন মঈন আলি। বাটলার ৬ বলে ৪ রান করেন। ১৬ বলে ১২ রান করেন স্যাম কারান। ডাক মারেন ক্রিস ওকস। ১০ বলে ৩ রান করেন ক্রিস জর্ডান। ২টি চারের সাহায্যে ২৭ বলে ২৮ রান করেন বেন ডাকেট। ১১ বলে ১১ রান করেন রেহান। আদিল রশিদ ২ বলে ২ রান করে অপরাজিত থাকেন। জফরা আর্চার ১ বলে ০ রান করে রান আউট।

বাংলাদেশের হয়ে ৪ ওভার বল করে ১২ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন মিরাজ। ৪ ওভারে ২৭ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন তাসকিন। ৩ ওভারে ১১ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন সাকিব। ২ ওভারে ১০ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন হাসান মাহমুদ। মুস্তাফিজ ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে ১ উইকেট নেন।

টার্গেট: নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে সব কয়টি উইকেট হারিয়ে ১১৭ রান স্কোর বোর্ডে জমা করে ইংল্যান্ড। সিরিজ জয়ের জন্য বাংলাদেশের প্রয়োজন ১১৮ রান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৮.৫ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১২০ তোলে বাংলাদেশ।

ফলাফল: ৭ বল হাতে রেখে ৪ উইকেটের বিশাল জয় পায় বাংলাদেশ।

একনজরে দুই দলের একাদশ:-

বাংলাদেশ : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নাজমুল হোসেন শান্ত, রনি তালুকদার, লিটন দাস, আফিফ হোসেন ধ্রুব, তৌহিদ হৃদয়, তাসকিন আহমেদ, নাসুম আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ ও মেহেদি হাসান মিরাজ।

ইংল্যান্ড : ফিল সল্ট, জস বাটলার (অধিনায়ক), ডেভিড মালান, বেন ডাকেট, মঈন আলী, স্যাম কারান, ক্রিস ওকস, ক্রিস জর্ডান, আদিল রশিদ, জফরা আর্চার ও রেহান।