images 2023 02 25T131049.783

ভিরাট কোহলিকে আবারো পিছনে ফেললেন বাবর আজম

বর্তমান সময়ের সেরা দুই ব্যাটার বিরাট কোহলি ও বাবর আজম। দুই জন আবার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশের সেরা ব্যাটার। এই দুই ব্যাটারকে নিয়ে তাদের ভক্তদের মধ্যে চলতে থাকে লড়াই। কে কার থেকে এগিয়ে, কোন ফরমেটে এগিয়ে তা নিয়ে চলতে থাকে তীব্র কথার লড়াই। এবার সেই লড়াইতেই যেন যোগ দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার মারকুটে স্বভাবের বাঁহাতি ক্রিকেটার কিলার মিলার খ্যাত ডেভিড মিলার। তাঁর মতে কভার ড্রাইভ খেলার ক্ষেত্রে তিনি বিরাট কোহলির থেকে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকেই এগিয়ে রাখবেন।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর তরফে ডেভিড মিলারকে প্রশ্ন করা হয়েছিল বিরাট না বাবর কার কভার ড্রাইভকে তিনি এগিয়ে রাখবেন? যার সোজাসাপ্টা উত্তর দিয়েছেন ডেভিড মিলার। প্রত্যয়ী কন্ঠে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, ‘আমি এই ক্ষেত্রে বাবরের সঙ্গেই যাব।’ অর্থাৎ বাবরকে তিনি কভার ড্রাইভ খেলার দিক থেকে বিরাটের থেকে এগিয়ে রেখেছেন‌। উল্লেখ্য দীর্ঘদিন ধরে এই প্রোটিয়া ব্যাটার খেলছেন আইপিএলে। গত বছর তাঁর ফ্রাঞ্চাইজি গুজরাট টাইটানস আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। যে জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিলেন তিনি। ফলে বিরাটকে খুব কাছ থেকে দেখার সুযোগও ছিল‌ মিলারের সামনে।

পাশাপাশি মিলারকে জসপ্রীত বুমরাহ এবং শাহিন শাহ আফ্রিদির ইয়র্কার নিয়েও প্রশ্ন করা হয়েছিল। জানতে চাওয়া হয়েছিল কার ইয়র্কার খেলতে সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়তে হয়েছে? প্রশ্নের উত্তরে মিলার জানিয়েছেন, ‘আমি এই ক্ষেত্রে বুমরাহর ইয়র্কারের কথা বলব।’ মিলারের মতে ২২ গজে শাহিন আফ্রিদির তুলনায় জসপ্রীত বুমরাহর ইয়র্কার সামলাতেই তাঁকে সবথেকে বেশি সমস্যায় পড়তে হয়েছে। প্রসঙ্গত এই মুহূর্তে মিলার খেলছেন পিএসএলে। মুলতান সুলতানসের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। এই মুহূর্তে পিএসএলের ক্রমতালিকায় শীর্ষে রয়েছে মিলারের দল। ৫ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৮ পয়েন্ট।

৩৪ বছর বয়সি কোহলি দীর্ঘদিন বাদে ফর্মে ফিরেছেন। রানের খরা কাটিয়ে সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে তিনি ভালো পারফরম্যান্স করলেও দীর্ঘতম ফর্ম্যাটে এখনও তাঁর ব্যাট থেকে পাওয়া যায়নি বিরাট সুলভ ইনিংস। যদিও সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দিল্লি টেস্টে তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২৫ হাজার রান করার নজির গড়েছেন। দ্রুততম ২৫ হাজার রান করে ভেঙে দিয়েছেন কিংবদন্তি সচিন তেন্ডুলকরের নজিরও। অন্যদিকে ২০২২ সালে বাবর আবার সমস্ত ফর্ম্যাটেই সর্বাধিক রান করারও নজির গড়েছেন।