images 2023 02 23T112120.138

এই ১টি শর্ত মানতে পারলেই ২০২৬ বিশ্বকাপ খেলতে পারবে মেসি

নিঃসন্দেহে সর্বকালের সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি। তার জীবনের সবচেয়ে বড় আক্ষেপ বিশ্বকাপ জয় সেইটা পূরণ হয়েছে কাতার বিশ্বকাপে। কাতার বিশ্বকাপ ছিল মেসির জীবনের স্বপ্ন পূরণের বিশ্বকাপ। আর এই বিশ্বকাপের মধ্য দিয়ে দীর্ঘ ৩৬ বছরের শিরোপা খরা কাটিয়েছে আর্জেন্টিনা। তবে কাতার বিশ্বকাপ শেষে সবার মনে এখন একটাই প্রশ্ন লিওনেল মেসি ২০২৬ বিশ্বকাপে খেলবেন কি না, এ নিয়ে যারা সংশয়ে ভুগছেন, বিশ্ব জুড়ে সেসব আর্জেন্টাইন ভক্তদের দারুণ একটা সুখবর। সুখবরটা দিলেন আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী কোচ লিওনেল স্কালোনি।

তিনি বলেছেন, এক শর্তে ২০২৬ বিশ্বকাপে খেলতে পারেন মেসি। মানে একটা শর্ত পূরণ হলেই মেসিকে দেখা যাবে ২০২৬ সালের যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকোর বিশ্বকাপে।

এবারের বিশ্বকাপই হবে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে আমার শেষ—এই ঘোষণা দিয়েই ২০২২ কাতার বিশ্বকাপে খেলতে এসেছিলেন লিওনেল মেসি। কিন্তু মেসি অবসর নেননি। বরং ক্যারিয়ারে প্রথম বারের মতো বিশ্বকাপ জয়ের পর নিজের সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন আর্জেন্টাইন তারকা।

বিশ্বকাপ জিতে দেশবাসীর ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে অবসরের বিষয়টি আপাতত মাথা থেকে সরিয়ে দিয়ে মেসি জানিয়েছেন, আরো কিছু দিন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হিসেবে খেলে যেতে চান। কিন্তু আর কতদিন দেশের হয়ে খেলাটা চালিয়ে যাবেন তিনি? সেটা অবশ্য স্পষ্ট করেননি মেসি। আর এই স্পষ্ট না করার বিষয়টিই বিশ্ব জুড়ে আর্জেন্টিনা ও মেসি ভক্তদের মনে একটা সংশয়মিশ্রিত প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে—মেসি কি ২০২৬ বিশ্বকাপে খেলবেন?

সম্প্রতি ইতালিতে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে ঠিক এই প্রশ্নটাই করা হয়েছিল স্কালোনিকে। ইএসপিএন কলম্বিয়ার পক্ষ থেকে করা এই প্রশ্নের উত্তরেই স্কালোনি উল্লেখ করেছেন একটা শর্তের কথা। সেই শর্তটা কী? শরীর সুস্থ থাকা।

স্কালোনি জানিয়েছেন, শরীর সুস্থ থাকলেই পরের বিশ্বকাপেও দেখা যাবে মেসিকে। বর্তমানে মেসির বয়স ৩৫। ২০২৬ বিশ্বকাপ আসতে আসতে তার বয়স হয়ে যাবে ৩৯।

ততদিন কি শারীরিকভাবে পরিপূর্ণ ফিট থাকতে পারবেন মেসি? প্রশ্নটা খুবই যৌক্তিক। কারণ একজন ফরোয়ার্ডের জন্য ৩৯ বছর বয়সে বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে খেলার মতো শারীরিকভাবে ফিট থাকা কঠিন।