20230222 191849

হুট করে শাহিন আফ্রিদির উপর চটেছেন শোয়েব আক্তার

টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে দলে থাকলেও মাত্র ২ ওভার বল করেছিলেন পাকিস্তানের তারকা পেস বোলার শাহিন আফ্রিদি। কিন্তু এই ম্যাচে বাকি দুই ওভার এই তা পেসার কে বল করে দেখা যায়নি। এই পাক তারকা বাকি ২ ওভার বল করতে না পারায় সহজেই জয়ের রান তুলে নেয় ইংল্যান্ড। হাঁটুতে চোট ছিল শাহিনের। সেটাই খুশি করতে পারেনি আখতারকে।

গত বছরের নভেম্বরে শেষ হয়েছে এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এরপর কেটে গেছে তিন মাস। কিন্তু এখনও শাহীন আফ্রিদির সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছেন না পাকিস্তান দলের সাবেক পেসার শোয়েব আখতার। বিশ্বকাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল শক্তিশালী পাকিস্তান ও শেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ী দল ইংল্যান্ড। ওই ম্যাচে আফ্রিদি পুরো ৪ ওভার বল করেননি। আহত হন তিনি। কিন্তু আফ্রিদির মতে, চোট থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তানের বাঁহাতি ফাস্ট বোলারের বোলিং করা উচিত ছিল।

ক্রিকেট বিশ্বের ভক্তরা দেই ম্যাচ দেখে ছিল যে বিশ্বকাপ ফাইনালে মাত্র ২ ওভার বল করেছিলেন শাহীন। কিন্তু বাকি ২ ওভার বল করতে না পারায় সহজেই জয় পায় ইংল্যান্ড। শাহীনের হাঁটুতে চোট লেগেছে। যার কারণে তিনি কথা বলতে পারেননি। সেই কষ্ট ভুলতে পারেন না আখতার।

শোয়েব বলেন, “হাতে মাত্র ১২ মিনিট। শাহিনের কাছে সুযোগ ছিল দেশের নায়ক হয়ে ওঠার। বল করার সময় প্রতি বার পড়ে গেলেও উঠে দাঁড়াতে হত। আমি হলে তাই করতাম। ইঞ্জেকশন, ব্যথা কমানোর ওষুধ নিয়ে খেলতাম। হাত থেকে বিশ্বকাপ বেরিয়ে যাওয়ার থেকে মরে যাওয়া ভাল।”

শোয়েব আখতার ১৯৯৭ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন। তিনি পাকিস্তানের জার্সিতে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১১ সালের বিশ্বকাপে। একাধিক বিশ্বকাপে খেলা আখতার বলেন, “আমার হাঁটু ভেঙে গেলে সেটা সারানো সম্ভব, কিন্তু বিশ্বকাপ জয়ের সুযোগ ফেরানো যায় না। এমন অবস্থায় আমি হলে বল করতাম।” শাহিন আফ্রিদি ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের হয়ে সব থেকে বেশি উইকেট নেন। ১১টি নেন তিনি। কিন্তু ফাইনাল ম্যাচটি দেশকে জেতাতে পারেননি।