সম্প্রতি শেষ হওয়া কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের স্বপ্ন পূরণ করেছে মেসি-দি মারিয়ারা। ৩৬ বছরের শিরোপা খরা কাটিয়েছে আর্জেন্টিনা। সবার জানা ছিল কাতার বিশ্বকাপ শেষেই জাতীয় দল থেকে অবসর নেবেন, গত বছরের জুন মাসে এমন ঘোষণাই দিয়েছিলেন আনহেল দি মারিয়া। কিন্তু বিশ্বকাপ জয়ের পর লিওনেল মেসির পথেই হেঁটেছেন আর্জেন্টিনার উইঙ্গার। ঘোষণা দিয়েছেন, আরও কিছুদিন খেলা চালিয়ে যেতে চান। চাইলে দি মারিয়া এবার এই ‘কিছুদিন’কে আরও ‘অনেক দিন’ করতেই পারেন!

কেননা আর্জেন্টিনার হেড কোচ লিওনেল স্কালোনি দি মারিয়াকে সেই লাইসেন্সই দিয়েছেন। আর্জেন্টিনার কোচ জানিয়ে দিয়েছেন, যত দিন খুশি আর্জেন্টিনার জার্সিতে খেলতে পারবেন দি মারিয়া।

Suggested Post :  সতীর্থদের নাম ব্যঙ্গ করায়, হুশিয়ারি সংকেত দিয়ে যা বললেন মেসি

কাতার বিশ্বকাপ আর্জেন্টাইন রূপকথা লেখা হয়েছে দুই মাস হলো। ২০২৬ বিশ্বকাপ তো এখনো অনেক দূরের পথ। চোট প্রবণ ৩৫ বছর বয়সী দি মারিয়ার জন্য ২০২৬ বিশ্বকাপ অনেক অনেক দূর। তখন তাঁর বয়স হয়ে যাবে ৩৯ বছর। চোট দি মারিয়ার নিত্যসঙ্গী, কাতার বিশ্বকাপেও চোটের সঙ্গে লড়তে হয়েছে দি মারিয়াকে। তাই মেসির মতো দি মারিয়ার ২০২৬ বিশ্বকাপেও খেলা নিয়ে খুব একটা কথা হয় না।

তবে প্রীতি ম্যাচ, বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব, এমনকি ২০২৪ কোপা আমেরিকার জন্য তাঁকে পাওয়া যেতে পারে। জাতীয় দলে আর্জেন্টাইন এই উইঙ্গারের ভবিষ্যৎ নিয়ে স্কালোনি বলেছেন, ‘দি মারিয়া একজন চ্যাম্পিয়ন। সে যত দিন চায় খেলে যাবে। আশা করছি সে আরও অনেক দিন আর্জেন্টিনার হয়ে খেলবে।’

Suggested Post :  'মেসি সেদিন আমার স্বপ্নে এলো, আমরা বিয়েও করলাম'

তবে সে জন্য দি মারিয়াকে একটা শর্ত বেঁধে দিয়েছেন স্কালোনি। আর্জেন্টিনার জার্সিতে খেলা চালিয়ে যেতে দি মারিয়াকে খেলার মতো ফিট থাকতে হবে।

আর্জেন্টিনার জার্সিতে লিওনেল মেসির ভবিষ্যৎ নিয়ে আগেও কথা বলেছেন স্কালোনি। ২০২৬ বিশ্বকাপে মেসির খেলা, না খেলা-পুরোটাই মেসির ওপর নির্ভর করছে, সেটা আরও একবার বললেন স্কালোনি, ‘পরের বিশ্বকাপে খেলা, না খেলা-পুরোটাই মেসির সিদ্ধান্ত। ও যদি ফিট থাকে, তাহলে খেলবে।’