বাজে ফিল্ডিংয়ের খেসারত দিতে হলো মুস্তাফিজদের। রাজস্থানকে ১৮৯ রানের টার্গেট দিল চেন্নাই

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএল -এ আজ চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজস্থান রয়েলস। টসে জিতে বোলিং করতে নেমে ইনিংসের চতুর্থ ওভারেই বোলিং করতে আসেন মুস্তাফিজুর রহমান। আর এসেই উইকেট তুলে নেন তিনি। রতুরাজ গায়কওয়াদ ১০ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মুস্তাফিজুর রহমান।

দলীয় ৪৫ রানের মাথায় আরেক ওপেনার ফাফ দু প্লেসিস প্যাভিলিয়নে ফেরেন ক্রিস মরিস। ১৭ বলে চারটি চার এবং দুটি ছক্কা সাহায্যে ৩৩ রান করেন তিনি। এর পরেই বোলারদের উপর চাপ সৃষ্টি করেন মঈন আলি। তবে ২০ বলে ২৬ রান করা এই ব্যাটসম্যানকে প্যাভিলিয়নে ফেরান রাহুল তেওয়াতিয়া।

তবে এই দিন ব্যাট হাতে চেন্নাই সুপার কিংসের কোন ব্যাটসম্যান বড় স্কোর করতে পারেনি। ইনিংসের ১৪ তম ওভারে জোড়া উইকেট তুলে নেন চেতন সাকারিয়া। প্রথমে ২৭ রান করা আম্বাতি রাইডুকে এবং একই ওভারে ১৮ রান করা সুরেশ রায়নাকে প্যাভিলিয়নে ফেরান চেতন সাকারিয়া।

বর্তমান সময় এটা মোটেই ভাল যাচ্ছেনা মহেন্দ্র সিং ধোনির। আজ ও ব্যাট হাতে রান করতে পারেননি তিনি। ১৭ বলে ১৮ রান করে চেতন সাকারিয়ার তৃতীয় শিকার হন তিনি। এরপর দলীয় ১৬৩ রানের মাথায় ৮ রান করা রবীন্দ্র জাদেজাকে প্যাভিলিয়নে ফেরান ক্রিস মরিস।

শেষ ওভারের প্রথম বলেই নিজের বলে নিজেই ফিল্ডিং করে স্যাম কারানকে রান আউট করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৬ বলে ১৩ রান করেন স্যাম কারান। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রান সংগ্রহ করে চেন্নাই সুপার কিংস। ৪ ওভার বোলিং করে ৩৭ রানের বিনিময়ে মোস্তাফিজুর তুলে নেন একটি উইকেট।

রাজস্থান রয়্যালস একাদশ: স্যাঞ্জু স্যামসন (অধিনায়ক), মানান ভোহরা, ডেভিড মিলার, জস বাটলার, শিভাম দুবে, রিয়ান পরাগ, রাহুল তেওয়াতিয়া, ক্রিস মরিস, চেতন সাকারিয়া, জয়দেব উনাদকাট এবং মুস্তাফিজুর রহমান।

চেন্নাই সুপার কিংস একাদশ: রতুরাজ গায়কওয়াদ, ফাফ ডু প্লেসিস, মইন আলী, সুরেশ রায়না, অম্বাতি রাইডু, স্যাম কারান, রবীন্দ্র জাদেজা, এমএস ধোনি, ডয়েন ব্র্যাভো, শারদুল ঠাকুর, দীপক চাহার।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment