gdzz

এবারের বিপিএলে সেরা খেলোয়াড় এর দৌড়ে এগিয়ে আছে যে ক্রিকেটার

একদম শেষ দিকে চলে এসেছে বিপিএল। আর মাত্র একটি ম্যাচ। সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। ফাইনালের লড়াইয়ে মাঠে নামবে দুই ফাইনালিস্ট সিলেট স্ট্রাইকার্স বনাম রংপুর রাইডার্স। আগামীকাল মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিলেট স্ট্রাইকার্স বিপক্ষে মাঠে নামবে রংপুর রাইডার্স। আর এরই মধ্যে দিয়ে শেষ হবে বিপিএলের নবম আসর। এবারের আসরে বিদেশি ক্রিকেটারদের থেকে অনেক বেশি ভালো পারফরম্যান্স করেছে দেশী ক্রিকেটাররা।

আর যার ফলে টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রান ও উইকেট সংগ্রহের তালিকায় প্রথম সারিতেই রয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। সিনিয়র ক্রিকেটারদের পাশাপাশি এবারের বিপিএলে সবচেয়ে ভালো ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করেছে তরুণ ক্রিকেটাররা‌। যার মধ্যে তৌহিদের হৃদয় হাসান মাহমুদ অন্যতম।

তবে এবারের বিপিএলে সবচেয়ে বড় চমক ফিনিসার খ্যাত নাসির হোসেন। লম্বা সময় পর আবারও ফর্মে ফিরেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল থেকে বাদ পড়া অলরাউন্ডার নাসির হোসেন। এমনকি এবারের টুর্নামেন্টে ম্যান অফ দা টুর্নামেন্ট পুরস্কার পাওয়ার সবচেয়ে বড় দাবিদার তিনি। চলুন দেখে নেয়াযাক বিপিএলে ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট পুরস্কার পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে যারা

নাসির হোসেন (ঢাকা ডমিনেটরস) : গত বিপিএলে ফিটনেস ঠিক না থাকার কারণে বিপিএলে খেলতে পারেননি নাসির। তবে এবার বিপিএলে ফিরে চমক দেখিয়েছেন তিনি। বিপিএলের এবারের আসরে ব্যাটিং এবং বোলিং দুই বিভাগেই অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছেন জাতীয় দলের এই অলরাউন্ডার।

তাইতো বিপিএলে ম্যান অফ দা টুর্নামেন্ট পুরস্কার পাওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে রয়েছেন তিনি। বিপিএলে গ্রুপ পর্ব থেকে বাদ পড়েছিল তার দল ঢাকা। বিপিএলে রান সংগ্রহের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছেন নাসির হোসেন।

১২ ম্যাচে ৪৫.৭৫ গড়ে ১২০ স্ট্রাইক রেটে ৩৬৬ রান করেছেন নাসির হোসেন। ব্যাট হাতে রয়েছে দুটি হাফ সেঞ্চুরি। শুধু ব্যাটিংয়েই নয় বল হাতেও দুর্দান্ত ছিলেন নাসির হোসেন। ১১ ইনিংসে বল হাতে ১৬ উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি।

সাকিব আল হাসান (ফরচুন বরিশাল) : বিপিএলে এবারের আসরে বরিশাল দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন সাকিব আল হাসান। দলকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি বিপিএলের এবারের আসরে ব্যাট হাতে চমৎকার খেলেছেন তিনি।

ব্যাট হাতে ১১ ইনিংসে ৪১.৬৬ গড়ে ৩৭৫ রান করেছেন সাকিব। তবে এবারের বিপিএলে সাকিবের স্ট্রাইক রেট ছিল চোখে পড়ার মতো ১৭৪.৪১। করেছেন তিনটি হাফ সেঞ্চুরি। তবে বোলিংয়ে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি সাকিব। ১৩ ইনিংসে তিনি নিয়েছেন ১০ উইকেট।

নাজমুল হোসেন শান্ত (সিলেট স্ট্রাইকার্স) : বিগত কয়েক মাস ধরেই নানা সমালোচনার মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কিছুটা হলেও রানে ফিরেছিলেন তিনি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি। যার ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগেও।

বিপিএলের এবারের আসরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। এখন পর্যন্ত ১৪ ইনিংসে ৩৭.৬৬ গড়ে ৪৫২ রান করেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনটি এবং স্ট্রাইকরেট ১১৩.৮৫। তাইতো বিপিএলে ম্যান অফ দা টুর্নামেন্ট হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন তিনি। ফাইনালে যদি একটি অসাধারণ ইনিংস খেলে দলকে জেতাতে পারেন তাহলে তার হাতেই উঠবে এই পুরস্কার।

তৌহিদ হৃদয় (সিলেট স্ট্রাইকার্স) : বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসরের সবচেয়ে বড় আবিষ্কার সিলেটের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান তৌহিদ হৃদয়। যদিও যুব বিশ্বকাপ জয়ী দলের অন্যতম সেরা সদস্য হওয়ায় তৌহিদ হৃদয়কে অনেকেই চেনেন। তবে এবারের বিপিএলের মধ্য দিয়ে নিজেকে অন্যভাবে তুলে ধরেছেন তিনি।

বিপিএলে এখন পর্যন্ত তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তৌহিদ হৃদয়। এখন পর্যন্ত ১১ ইনিংসে ৪০.৩০ গড়ে ৪০৩ রান সংগ্রহ করেছেন তৌহিদ হৃদয়। ব্যাট হাতে এবারের বিপিএলের সর্বোচ্চ পাঁচটি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। স্ট্রাইকরেট ১৪১.৪০। তাই ফাইনালে যদি তিনিও ভালো একটি ইনিংস খেলতে পারেন তাহলে এই পুরস্কার পাওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকতে পারেন।