গ্যালারিতে হঠাৎ উত্তেজিত রোহিতের স্ত্রী, কারণ জানাল মুম্বাই

প্রথম দিন থেকেই জমে উঠেছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১৪তম আসর। এ পর্যন্ত হয়ে যাওয়া সাতটি ম্যাচের প্রায় সবই ছিল টান টান উত্তেজনার। কোন দল জিতবে তা নিশ্চিতে শেষ ওভার অবধি দৃষ্টি দিতে হয়েছে ক্রিকেটপ্রেমীদের। টিভি সেটের দর্শকদের মতো বুধবার গ্যালারিতে বসে উত্তেজনা ছড়িয়েছিলেন মুম্বই ইন্ডিয়ানসের অধিনায়ক রোহিত শর্মার স্ত্রী রিতিকা সাজদেও ।

তার সেই অভিব্যক্তি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়। তবে তার অভিব্যক্তি আর প্রতিক্রিয়া ছিল চোখে পড়ার মতো। কেনইবা এতটা হতভম্ব হয়ে গিয়েছিলেন রিতিকা, এত প্রতিক্রিয়া দেখানোর কী কারণ ছিল, তা নিয়ে জল্পনা তৈরি হয় নেটদুনিয়ায়।

নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার দিনই পাঁচ লাখ মানুষ দেখে ফেলেছেন রিতিকার সেই মুহূর্তের দৃশ্য। অবশেষে সমর্থকদের জন্য সেই রহস্য ফাঁস করল রোহিতের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ানস। ঘটনাটি গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত কলকাতা নাইট রাইডার্স ও মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের ম্যাচের ।

চেন্নাইয়ের চিদাম্বরাম স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে বসে এদিন উত্তেজনায় ফুটতে দেখা যায় রোহিত শর্মার স্ত্রী রিতিকা সাজদেকে। এ বিষয়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস জানিয়েছে, রোহিতকে হঠাৎ বল করতে দেখে অবাক হয়ে গিয়েছিলেন রিতিকা। শেষ ৭ ওভারে ৪৯ রান দরকার ছিল কলকাতার। তখন বল করতে আসেন রোহিত শর্মা। ক্রিজে ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও কেকেআরের ইনফর্মার ওপেনার নীতিশ রানা। এমন সময়ে অধিনায়ক রোহিত কেন বল হাতে নিলেন আর তিনি যদি তুলোধোনা হন সেই আশঙ্কায় ভুগছিলেন রিতিকা ।

যে কারণে উত্তেজনার সঙ্গে আতঙ্কিতও ছিলেন রিতিকা। এ সময় রিতিকার পাশে ছিলেন হার্দিক পান্ডিয়ার স্ত্রী নাতাশা স্ট্যানকোভিচ ও ক্রুণাল পান্ডিয়ার স্ত্রী পাঙ্খুরি শর্মা। রোহিতের সেই ওভারে অবশ্য বেশি রান নিতে পারেননি সাকিব। প্রথম ডেলিভারিকে চারে পরিণত করেন সাকিব। এরপর আর কোনো বাউন্ডারি হতে দেননি রোহিত। মাত্র ৯ রান দিয়ে ওভার শেষ করেন মুম্বাই অধিনায়ক। ওই ম্যাচশেষে ১০ রানে জয় পায় মুম্বাই। মুম্বাইয়ের ছোড়া ১৫৩ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪২ রানে শেষ হয় কেকেআরের ইনিংস।

উল্লেখ্য, আইপিএলে এই প্রথম বল করেননি রোহিত। ২০১৪ সালের আইপিএলে প্রথমবারের মতো বল করতে দেখা গিয়েছিল রোহিতকে।।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment