র‍্যাংকিংয়ে আর্জেন্টিনার উন্নতি; দেখেননি ব্রাজিল ফ্রান্সের অবস্থান

৩৬ বছর পর আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়। টানা ৩৬ ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর সৌদি আরবের বিপক্ষে হারলেও ঠিকই পরবর্তী সব ম্যাচ জিতে বিশ্বকাপ জয় করেছে মেসিবাহিনী। এমন সুখের দিনেও মেসিদের জন্য দুঃসংবাদ দিল ফিফা। বিশ্বকাপের পরপরই ফিফা র‌্যাংকিং প্রকাশ করে। সেখানে আশ্চর্যজনকভাবে বিশ্বকাপ জিতেও শীর্ষে উঠতে পারেনি আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপের পরেও শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ন রেখেছে ব্রাজিল।

২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বেলজিয়ামকে টপকে ফিফা র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করে ব্রাজিল। এরপর থেকে টানা ১০ মাস শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে তারা। যদিও বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে হেরে বিদায় নিয়েছিল ব্রাজিল। বিশ্বকাপে ব্রাজিল ৩টি ম্যাচ জিতেছে। ক্যামেরুনের সঙ্গে একটি হার এবং ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ড্র করে তারা।

আর্জেন্টিনা ২০২১ সালের কোপা আমেরিকা, ২০২২ ফিনালিসিমা ট্রফি ও ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ জয়ের পরেও ফিফা র‌্যাংকিংয়ে এক নম্বর দল হতে পারেনি। আর্জেন্টিনা শীর্ষস্থানে আসতে পারতো যদি তারা বিশ্বকাপের ফাইনালে ফ্রান্সকে হারাতে পারতো নির্ধারিত সময়ের ভেতর কিন্তু মেসিরা সেটি করতে ব্যর্থ হয়।

আর্জেন্টিনা এবং ফ্রান্স দুই দলই যথাক্রমে দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে অবস্থান করছে। অন্যদিকে বেলজিয়াম দুই ধাপ পিছিয়ে ৪ নম্বর স্থানে অবস্থান করছে। ইংল্যান্ড ও নেদারল্যান্ডস রয়েছে যথাক্রমে পাঁচ ও ছয়ে। শীর্ষ দশে সবচেয়ে বড় লাফটি দিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। তারা ১০ম স্থান থেকে ৭ম স্থানে উঠে এসেছে।

অন্যদিকে বিশ্বকাপে অংশ না নিয়েও ৮ম স্থানে অবস্থান করছে ইতালি। বিশ্বকাপের দুই হট ফেবারিট পর্তুগাল ৯ম ও স্পেন ১০ম স্থানে রয়েছে। এবারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে আকর্ষণীয় দল ছিল মরক্কো। তারা তাদের ফুটবল ইতিহাসের সর্বোচ্চ র‌্যাংকিংয়ে পৌঁছেছে। ১১ নম্বরে অবস্থান করছে আফ্রিকান লায়ন্সরা।

You May Also Like