বাটলারদের নয়, মুস্তাফিজদের অধিনায়ক হতে চান স্যামসন

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) গেল মৌসুমে রাজস্থান রয়্যালসকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন স্টিভেন স্মিথ। তবে গেল আইপিএলে দল হিসেবে ভালো করতে পারেনি রাজস্থান। যে কারণে এবারের আসরের নিলামের আগে স্মিথকে ছেড়ে দিয়েছিল দলটি। ফলে নতুন মৌসুমের জন্য অধিনায়ক হিসেবে সাঞ্জু স্যামসনকে দায়িত্ব দিয়েছে রাজস্থান।

অধিনায়ক হিসেবে তরুণ হলেও এবারের আসরে বাজিমাৎ করতে চান স্যামসন। সেই সঙ্গে নিজের অধিনায়কত্ব নিয়ে আলাপকালে তিনি জানিয়েছেন, আইপিএলের মতো টুর্নামেন্টে তিনি ব্যাটসম্যানদের নয় বরং বোলারদের অধিনায়ক হতে চান। এ ছাড়া কেবল ফিল্ডিং করার সময় নিজেকে অধিনায়ক হিসেবে ভাবতে চান তিনি।

উইকেটগুলো ব্যাটিং বান্ধব হওয়ায় আইপিএলে বরাবরই ব্যাটসম্যানদের দাপট দেখা যায়। প্রতি ম্যাচেই চার ছক্কার ফুল ঝুড়ি ‍ছুটান ব্যাটসম্যানরা। এখানে তারাই কেবল ভালো করে যারা একটু কৌশলে বোলিং করে। তবে সেটা সংখ্যা কমই বলা চলে। যে কারণে এত বড় টুর্নামেন্টে দলের বোলারদের পাশে থাকতে চান স্যামসন।

এ প্রসঙ্গে স্যামসন বলেন, ‘আমাকে হতে হবে (বোলারদের অধিনায়ক)। আইপিএলের দলকে নেতৃত্ব দিতে হলে আপনাকে বোলারদের পাশে থাকতে হবে। সুতরাং আমি অবশ্যই বোলারদের অধিনায়ক, আমি এটা বলতে পারি।’

দল যখন ফিল্ডিং করবে তখনই কেবল নিজেকে অধিনায়ক হিসেবে ভাবতে চান স্যামসন। তিনি মনে করেন, ব্যাটসম্যানদের জন্য অধিনায়ক হওয়া সম্ভব নয়। অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের যে ভূমিকা থাকে একজন অধিনায়কেরও সেই ভূমিকা উচিত বলে জানিয়েছেন তিনি। এ ছাড়া ব্যাটিং করার সময় অধিনায়কত্বের কথা মাথায় আনতে চান না তিনি।

স্যামসন বলেন, ‘আমি মানসিকভাবে যা বুঝতে পেরেছি সেটা হলো আপনি ব্যাটিং অধিনায়ক হতে পারবেন না। ফিল্ডিং করার সময় আপনি একজন অধিনায়ক, আপনি যখন ব্যাটিং করছেন তখন প্রত্যেককে নির্দিষ্ট ভূমিকা দেওয়া হয় এবং আপনার একই হওয়া দরকার। ব্যাটিংয়ের সময় আপনি অধিনায়কত্বের কথা মাথায় আনা যাবে না।’

অধিনায়ক হিসেবে আলাদা দায়িত্ব থাকলেও ব্যাটিং করার সময় সেই দায়িত্বের চাপ নিতে চান না তিনি। বরং যখন ব্যাটিংয়ে থাকবেন তখন শুধু দলকে জেতাতে চান স্যামসন। যে কারণে ব্যাটিংয়ের সময় অধিনায়কত্বকে এক পাশে রেখে শুধুমাত্র ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দিতে চান এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

তিনি বলেন, ‘আপনি যখন ব্যাটিং করছেন তখন আপনি একবারে ফাঁকা। আপনি নিজের ওপর নির্ভর করছেন, প্রতিটি বল দেখছেন এবং আলাদা আলাদা শট খেলছেন। আপনি যদি আমাকে প্রশ্ন করেন যে অধিনায়ক হিসেবে কি তবে কোনো দায়িত্ব নেই? হ্যাঁ, দায়িত্ব রয়েছে। আমি যখন দলের হয়ে ব্যাটিং করি তখন চিন্তা হলো দলকে জেতানো। সেটা আমি অধিনায়ক থাকি কিংবা না থাকি। প্রতিবারই এটি আমার করা দরকার। অধিনায়কত্বকে এক পাশে রেখে যখন ব্যাটিং করবেন তখন ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দেয়াটা গুরুত্বপূর্ণ।’

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment