অস্ট্রেলিয়া ও ভারত নয়; এবার টি টুয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতবে পাকিস্তান!

পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার ওয়াকার ইউনিস বিশ্বাস করেন যে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে চলা আসন্ন আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২-এ পাকিস্তান ক্রিকেট দল ভালো করবে কারণ সেখানকার পিচগুলি ব্যাটিং এবং বোলিং দুই বিভাগের জন্যই দুর্দান্ত। টি-২০ বিশ্বকাপ ২০২২ সালের ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু হবে।

প্রায় এক মাস ধরে চলা এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা হবে ১৩ নভেম্বর। ওয়াকার ইউনিস বলেছেন, বাবর আজম ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ানের সঙ্গে পাকিস্তানের টপ অর্ডারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার আরও বলেছিলেন যে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের বিশ্বের অন্যতম সেরা বোলিং আক্রমণ রয়েছে।

ওয়াকার ইউনিস মেলবোর্নে আইসিসি ডিজিটালকে বলেছেন, “আমাদের এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২২-এ ভালো করার খুব ভাল সুযোগ রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার পিচগুলি সাধারণত ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো এবং পাকিস্তানের দুর্দান্ত সব ব্যাটসম্যান রয়েছে যারা এই পরিস্থিতিতে ভালো খেলতে পারে।” বাবর আজম ওয়ানডে ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত মাত্র ৮৯টি ম্যাচ খেলেছেন, ৮৭ ইনিংসে করেছেন ৪৪৪২ রান। বাবর আজমের গড় ৫৯.২৩।

ওডিআই কেরিয়ারে এখন পর্যন্ত তার ১৭টি সেঞ্চুরি, ১৯টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে। বাবর আজম বর্তমানে আইসিসি ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে রয়েছে। তিনি আরও যোগ করেছেন, “বাবর আজম অবশ্যই টপ অর্ডারে পাকিস্তানের মূল ব্যাটসম্যান হবেন। আমি মনে করি বাবর সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দেবে, এবং ভালো ব্যাটিং করবে। অন্যদিকে মোহাম্মদ রিজওয়ানও ভালো ফর্মে। তাই আমাদের ব্যাটিং আমার কাছে শক্তিশালী মনে হচ্ছে।

বাবর আজম আধুনিক যুগের একজন মিলিয়ন ডলারের খেলোয়াড় এবং তিনি অবশ্যই সর্বকালের সেরা খেলোয়াড়দের একজন।প্রাক্তন এই পাক তারকা আরও বলে, “আমরা ভুলে যেতে পারি না যে ক্রিকেটের সেরা খেলোয়াড়রা বিভিন্ন যুগে তাদের ক্যারিশমা এবং তাদের শিল্প প্রদর্শন করেছে। এর পাশাপাশি পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণ বিশ্বের অন্যতম সেরা। পাকিস্তানের ফাস্ট বোলিং আক্রমণ খুব ভালো। অন্যদিকে, শাদাব খান এবং মোহাম্মদ নওয়াজকে দলে নেওয়ায় তারা আরও শক্তিশালী হয়ে উঠেছে।

কোন সন্দেহ নেই এরা দু’জন খুবই ভালো স্পিনার।

x

You May Also Like