ব্যর্থ আশরাফুল ইমরুলের ব্যাটে হাশি; নাইমের ডাক

আজ থেকে মাঠে গড়াল ২৪তম জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল)। টায়ার টুতে খুলনায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৯৪ রানের পিছিয়ে থেকে দিন শেষ করেছে ঢাকা মেট্রো। ইমরুল কায়েসের ব্যর্থতার দিনে ডাক হয়েছেন মেট্রোর অধিনায়ক মোহাম্মদ নাইম। অপরদিকে, রাজশাহীর ভেন্যুতে লড়ছে বরিশাল। ওপেনিংয়ে ব্যর্থ মোহাম্মদ আশরাফুল। তবে সোহাগ গাজী আর আবু সায়েমের জোড়া ফিফটিতে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৬৯ রান তুলেছে বরিশাল।

রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে বরিশাল বিভাগ দিনের শুরুতেই হারায় মোহাম্মদ আশরাফুলের উইকেট। ১৫ বলে খেলে আশরাফুল বিদায় নেন ১ রান করে। আরেক ওপেনার রাফসান আল মাহমুদ করেন ৩৭ রান। অধিনায়ক ফজলে রাব্বি আউট হন ২০ রানে।

তবে সোহাগ গাজী আর উইকেটকিপার ব্যাটার আবু সায়েমের ব্যাটে স্বস্তি ফেরে বরিশাল শিবিরে। ওয়ানডে মেজাজে ফিফটি তুলে গাজী বিদায় নেন ব্যক্তিগত ৫৬ রানে। সায়েমের ব্যাট থেকে আসে ৫৯ রান। এরপর লড়াই চালালেন তানভীর ইসলাম।

ফরহাদ রেজার করা দিনের শেষ ওভারে ১ চার ও ২ ছক্কায় ১৬ রান তুলেন তানভীর ইসলাম। দিনশেষে তিনি অপরাজিত থাকেন ৪৩ রানে। ৯ উইকেট হারিয়ে স্কোরবোর্ডে বরিশালের সংগ্রহ ২৬৯ রান।

বল হাতে রাজশাহীর নাহিদ রানা ৩৬ রান খরচায় তুলে নেন সর্বোচ্চ ৪ উইকেট।

আরেক ম্যাচে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ঘরের দল অলআউট হয়ে যায় ১৩১ রানে। স্কোরবোর্ডে ১৮ রান তুলতেই খুলনা হারিয়ে ফেলে টপ অর্ডারের তিন ব্যাটারকে। ওপেনার প্রান্তিক নওরোজ নাবিল করেন ৫ রান। তিনে নামা উইকেটকিপার ইমরানুজ্জামান ফেরেন ডাক হয়ে।

অধিনায়ক ইমরুল কায়েসও ব্যাট হাতে ব্যর্থ। আবু হায়দার রনির বলে ক্যাচ তোলার আগে পাঁচ বলে করেন চার। এরপর শেখ মেহেদী হাসানের ব্যাট থেকে আসে ২০ রান। নাহিদুল ইসলাম খেলেন সর্বোচ্চ ৪২ রানের ইনিংস।

ওপেনার অমিত মজুমদার ১৬৭ বলে খেলে ৩৫ রানে বিদায় নেন। এরপর হয়নি আর কোনো দেখার মতো ইনিংস। ফলে ১৩১ রানেই গুটিয়ে যায় স্বাগতিক খুলনা।

জবাব দিতে নেমে ডাক হয়ে ফেরেন ঢাকা মেট্রোর অধিনায়ক নাইম শেখ। আরেক ওপেনার মাহফিজুল রবিন অবশ্য আউট হন ২০ রান যোগ করে। অভিজ্ঞ মার্শাল আইয়ুব বিদায় নেন ব্যক্তিগত ৪ রানে। ২৯ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে মেট্রো।

খুলনায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৯৪ রানের পিছিয়ে থেকে দিন শেষ করেছে ঢাকা মেট্রো। তিনে নামা শামসুর রহমান শুভ অপরাজিত ২০ রান নিয়ে।

x

You May Also Like