রিয়াদের বদলি শান্তর দক্ষতায় রিয়াদকে ভুলা যায়?

ত্রিদেশীয় সিরিজ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে ডাক পাওয়ার পর অবশেষে মাঠে নামতে পারলেন তিনি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমে নাজমুল হোসেন শান্ত রানও পেলেন। রোববার হেগলি ওভালের উইকেটে করেন ২৯ বলে ৩৩ রান। ম্যাচ শেষে এ ওপেনার জানালেন চাপে ছিলেন না তিনি।

গত মাসে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে শান্তর নাম থাকায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শুরু হয় সমালোচনার ঝড়। তবে সেসব চাপকে উড়িয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শান্ত রান পেলেন। ৩৩ রান তুলেই জানালেন, নিজের দক্ষতায় বিশ্বাস ছিল তার।

৮ উইকেটে ম্যাচ হারের পর সংবাদ সম্মেলনে এই ওপেনার জানালেন নিজের স্কিলের উপর সবসময় বিশ্বাস করেন। শান্ত বলছিলেন, ‘আন্ডারপ্রেশারে ছিলাম না সত্যি কথা বলতে। কারণ টিম ম্যানেজমেন্ট, কোচিং স্টাফ, সিলেক্টর থেকে সবসময় পাশে ছিল। আর আমি আমার স্কিলের উপর সবসময় বিশ্বাস করি। একটা খারাপ সময় গেছে, চেষ্টা করবো সামনে আরো সুযোগ পেলে ভালোভাবে কাজে লাগানোর।’

শান্ত আরও যোগ করেন, ‘আমি যখনই সুযোগ পেয়েছি তখনই কোচ-সিলেক্টর সবার সাথে কথা হয়েছে। যদি সুযোগ পাই উপরের দিকেই ব্যাটিং করবো এটা আমি অনেক আগে থেকেই জানি। সেই অনুযায়ী আমি যখন প্রাকটিস সেশন করেছি তখন নতুন বলের প্রিপারেশনই নিয়েছি।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ হারের কারণ হিসেবে শান্ত দায়ী করলেন মিডল অর্ডারের দ্রুত উইকেট হারানোকে। একটু স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে পারলে দলের স্কোর আরো বড় হতে পারতো বলে জানালেন এই ওপেনার।

শান্ত বলছিলেন, ‘আমার মনে হয় মিডল অর্ডারে আমরা ব্যাক টু ব্যাক উইকেট দিয়েছি। সত্যি কথা বলতে ফাস্ট ইনিংসে উইকেট এত ইজিও ছিল না। এই জায়গায় আমরা আরেকটু স্মার্ট ক্রিকেট খেললে আরেকটু বড় স্কোর হতে পারতো, বাট মিডল ওভারে আরেকটু বেটার ব্যাটিং করতে পারতো।’

You May Also Like