ব্যর্থ সাব্বিরের বদলি সৌম্য সরকার নাকি হারিয়ে যাবেন সৌম্য

InCollage 20221008 142712778

দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল সর্বশেষ বাংলাদেশের জার্সিতে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিলেন ২০২০ সালের ৯ মার্চ। এই ফরম্যাটে পরবর্তীতে আর মাঠে না নামা এই ওপেনার এবারের এশিয়া কাপের আগেই আচমকা অবসরই নিয়ে ফেলেছেন। তামিমের টি-টোয়েন্টিতে না খেলার পর থেকে এই ফরম্যাটে মোট ৪১টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যেখানে মোট ১২ জন ওপেনার খেলিয়েছে টাইগার টিম ম্যানেজমেন্ট।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

তবুও চলতি বছর অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য কোনো নির্দিষ্ট ওপেনিং জুটি দাঁড় করাতে পারেনি বাংলাদেশ। সর্বশেষ এশিয়া কাপ থেকে টাইগারদের পক্ষে টি-টোয়েন্টিতে ওপেনিং করছেন মেহেদী হাসান মিরাজ-সাব্বির রহমান জুটি। যেখানে মিরাজ সামর্থ্যের কিছু ঝলক দেখাতে পারলেও চরম ব্যর্থ সাব্বির। ৪ ম্যাচে করতে পেরেছেন মোটে ৩১ রান।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

এরমধ্যে তিন ম্যাচে একটি করে ভালো শট খেলেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছেন এই ডানহাতি হার্ড হিটার। গতকাল শুক্রবার ৭ অক্টোবর পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেও ফ্রি লাইসেন্স পেয়েও ১৮ বলে করেছেন মোটে ১৪ রান। এমন পারফরম্যান্সে ওপেনিংয়ে সাব্বিরের পজিশন এখন নড়বড়ে। তার বদলি হিসেবে চলতি ত্রিদেশীয় সিরিজে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামতে পারেন সৌম্য সরকার।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

এদিকে বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে চলমান ‘বাংলাওয়াশ’ ত্রিদেশীয় সিরিজের স্কোয়াডে রাখা হয়েছে সৌম্যকে। যদিও কোনো হাতি-ঘোড়া মেরে দলে আসেননি এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। বরং সৌম্যের ব্যাট হাতে পারফরম্যান্স ছিল বড্ড শোচনীয়। এতটাই শোচনীয় যে, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে অফফর্মের জন্য মোহামেডান পর্যন্ত বাদ দিতে হয় এই ক্রিকেটারকে।

তবুও টাইগার শিবিরে টি-টোয়েন্টির অন্য ১২ ওপেনারদের মধ্যে মন্দের ভালো হিসেবে এবং ট্রান্স তাসমান প্রদেশে খেলার অভিজ্ঞতার দরুণ বিবেচনা করা হচ্ছে সৌম্যকে। এই ক্রিকেটারের ১২২ স্ট্রাইক রেটও বড় ভূমিকা রাখছে তাকে নির্বাচনের ক্ষেত্রে। অন্যদের স্ট্রাইক রেট তো আরও শোচনীয়।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

এ ছাড়াও সৌম্যকে সুযোগ দেওয়ার আগে সাম্প্রতিক সময়ে মাঠে নামানো মুনিম শাহরিয়ার, আনামুল হক বিজয়, নাঈম শেখরাও এই পজিশনের সঙ্গে সুবিচার করতে পারেনি। নাঈম রান করলেও তামিমের বিদায়ের পর থেকে তার স্ট্রাইক রেট মাত্র ৯৮.৪৩। আধুনিক ক্রিকেটে টি-টোয়েন্টিতে যা অপরাধ। এ ছাড়াও মুনিম আর বিজয় তো রানই করতে পারেনি।

এদিকে ব্যাকআপ ওপেনার হিসেবে নাজমুল হোসেন শান্তকেও বিবেচনায় রাখছে টাইগার টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে এই ফরম্যাটে জাতীয় দলের জার্সিতে ১ ম্যাচে ওপেনিং করে ৫ রান করা শান্তর চেয়েও অভিজ্ঞতা বিবেচনায়ও এগিয়ে থাকবেন সৌম্য। ফলে কিউইদের বিপক্ষে মেকশিফট ওপেনার সাব্বিরের বদলে সৌম্যকে দেখলে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না। আগামীকাল ৯ অক্টোবর রবিবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টায় কিউইদের বিপক্ষে মাঠে নামবে টাইগাররা।

You May Also Like