বিশ্বকাপ শুরুর আগেই বিসিবিতে ক্যাচাল!

InCollage 20221004 185148354

খেলা পাগল সমর্থকদের কাছে নিজের দেশ, ক্লাব কিংবা প্রিয় খেলোয়াড়ের জার্সি মানেই বিশেষ কিছু। যার ফলে বিশ্ব ক্রীড়ায় খেলোয়াড়দের জার্সির প্রচুর চাহিদাও দেখা যায়। ২০২২ অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের জার্সি নিয়েও এবার আলোচনা ছিল তুঙ্গে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এক ভিডিও প্রকাশ করে

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

টাইগারদের বিশ্বকাপ জার্সি অবমুক্ত করে। যেখানে তারা জানায়, এবারের জার্সিটি বাংলাদেশের ঐতিহ্য সুন্দরবন, রয়েল বেঙ্গল টাইগার এবং জামদানির কথা মাথায় রেখে বানানো হয়েছে।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

তবে জার্সি উন্মোচনের সপ্তাহ না পেরোতেই জানা গেছে, এই জার্সি বানাতে কোনো চিন্তা-ভাবনাই খরচ করেনি কেউই। বরং ইন্টারনেটে রয়েল বেঙ্গল টাইগারের একটি ছবিকে নামিয়ে সেটা জার্সির মধ্যে বসিয়ে তৈরি করা হয়েছে এবারের বিশ্বকাপ জার্সি। অর্থাৎ, টাইগারদের বিশ্বকাপ জার্সির ডিজাইনটি চুরি করে করা বলে অভিযোগ উঠছে।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

ইতোমধ্যে সেই ছবিটাও প্রকাশ পেয়েছে। ক্রিকসার্কেল নামক ক্রীড়া পেইজ বাংলাদেশের জার্সি এবং ইন্টারনেটে পাওয়া বাঘের সেই ডিজাইন তুলে ধরেছে। সেখানে বাংলাদেশের জার্সির ডিজাইন চুরির বিষয়েও অভিযোগ তুলেছে তারা। এই ডিজাইনটি ২০১৫ সালে পিন্টারেস্ট ওয়েবসাইটে প্রথম আপ করা হয়।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

সেখানে তারা লিখেছে, ‘ক্রীড়ামোদিরা সবসময় জার্সির বিষয়টি নিয়ে সচেতন থাকে, এটা তাদের কাছে আবেগের মতো। একটি জার্সি তৈরির কোম্পানি বাংলাদেশি ক্রিকেট ভক্তদের এই আবেগ নিয়ে খেলা করছে। তারা সদ্যই ডিজাইন চুরি করেছে।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

বাংলাদেশের ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জার্সিটির ডিজাইনটি সেই চুরির উদাহরণ। মানুষ যদিও শুরুতে জার্সিটি খুবই পছন্দ করেছে। তারা এর ডিজাইন এবং রঙ পছন্দ করেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এবং মিডিয়াও বিষয়টি তুলে ধরেছে।

তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অরিজিনাল ডিজাইন দেখে মানুষের মতামত বদলে গেছে। জার্সি তৈরিকৃতি প্রতিষ্ঠানটি বিসিবি, মিডিয়া এবং ভক্তদের বোকা বানিয়েছে।

You May Also Like