কাতার বিশ্বকাপের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর প্রতিবাদ ডেনমার্কের

khelaprotidin.com 2022 10 03T033244.306

অভিবাসী শ্রমিকদের অধিকারের প্রশ্নে ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ কাতারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে অনেক আগেই। এবার ডেনমার্ক ভিন্নভাবে তাদের অবস্থান জানাল।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

বিশ্বকাপে দলটি যে জার্সি পরে খেলবে, সেই জার্সির রং, লোগো আগের মতো উজ্জ্বল থাকবে না, ফিকে থাকবে। ডেনমার্কের জার্সি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হুমেল তিনটি জার্সির ডিজাইন প্রকাশ করেছে। মূল জার্সির রং প্রথাগত লাল নয়, ফিকে লাল করেছে তারা।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

জার্সির ওপর থাকা ডেনমার্কের লোগোও এমনভাবে রাখা হয়েছে, পরিষ্কার দেখার উপায় নেই। দ্বিতীয় জার্সির রং সাদা এবং তৃতীয় জার্সি পুরোপুরি কালো। কালো রং ‘শোকের প্রতীক।’ কেন এমন পদক্ষেপ? এ প্রসঙ্গে জার্সি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, তারা চায় না ডেনমার্কের বিশ্বকাপে অংশ নেওয়ার বিষয়টি ‘দৃশ্যমান হোক’। প্রতিষ্ঠানটির দাবি ‘হাজারো জীবনের বিনিময়ে’ এই আয়োজন।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

তারা বলেছেন, ‘আমরা ডেনিস জাতীয় দলকে সমর্থন করি, কিন্তু একই সমর্থন আমরা বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ কাতারকে করি না।’
উল্লেখ্য, ২০২২ বিশ্বকাপ কাতারে আয়োজনের সিদ্ধান্ত গ্রহণের পর থেকেই আলোচনাটা চলছে। বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম নির্মাণ, প্রস্তুতিতে কাজে লাগানোর দেশটি প্রবাসী শ্রমিকদের সঙ্গে মানবাধিকার লঙ্ঘন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে আসছে বিভিন্ন সংগঠন।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

এ নিয়ে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিশেষ এক প্রতিবেদনও ছাপায় ইংলিশ পত্রিকা গার্ডিয়ান। তাদের বিশেষ প্রতিবেদনে উঠে এসেছে চমকে দেওয়া এক তথ্য। ১০ বছর আগে বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ পাওয়ার পর এর প্রস্তুতিতে সেখানে সাড়ে ৬ হাজারের বেশি দক্ষিণ এশিয়ান শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

এর মধ্যে মৃত বাংলাদেশি শ্রমিকের সংখ্যা ১ হাজার ১৮। কাতারে পাকিস্তানের দূতাবাস থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ সময়ে ৮২৪ জন পাকিস্তানি শ্রমিক মারা গেছেন মধ্যপ্রাচ্যের এ দেশে।

তথ্যসূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

You May Also Like