বল হাতে জ্বলে উঠেছে সাকিব আল হাসান; সিপিএলে বলিং চমক

ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে যোগ দেওয়ার পর থেকে ব্যাট হাতে সময়টা ভালো কাটছে না সাকিব আল হাসানের। গতকাল চলতি সিপিএল মৌসুমে নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন তিনি, সে ম্যাচে প্রথম বলেই বিদায় নিয়েছিলেন সময়ের সেরা এই অলরাউন্ডার। যদিও বল হাতে একটা উইকেট তুলে নিয়েছিলেন তিনি। আজ দ্বিতীয় ম্যাচেও ভাগ্য অপরিবর্তিতই রইল তার। বল হাতে ভালো সময় কাটালেও, ব্যাট হাতে আবারও সেই ‘গোল্ডেন ডাক’ই সঙ্গী হলো তার।

বল হাতে আগের দিনের চেয়ে সময়টা খানিকটা ভালোই কেটেছে সাকিবের। আগের দিন ৪ ওভার করে ৩০ রান খরচায় সাকিব তুলে নিয়েছিলেন একটি উইকেট। সাকিব আজ সেন্ট লুসিয়া কিংসের হয়ে আগের দিনের মতোই ৪ ওভার বল করেছেন, সে ম্যাচের চেয়ে ৩ রান বেশি দিলেও সাকিব তুলে নিয়েছেন দুটো উইকেট। দল যখন ওভারপ্রতি প্রায় ১০ রান করে হজম করেছে, তখন ৮.২৫ ইকনমি রেট নিয়ে বোলিং কোটা শেষ করাটা নেহায়েত মন্দ কিছু নয় বৈকি!

সাকিবের এমন বোলিংয়ের পরও সেন্ট লুসিয়া ২০ ওভার শেষে তুলে ফেলেছে ১৯৪ রান। ফ্যাফ ডু প্লেসির ৫৯ বলে ১০৩ রানের ইনিংসই মূলত ভিত গড়ে দিয়েছে এত বড় সংগ্রহের। জবাবে হেমরাজ চন্দরপল আর রাহমানউল্লাহ গুরবাজের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ভালোই জবাব দিতে থাকে গায়ানা।

৪৩ বলে ৮১ রানে চন্দরপল ফেরার পরই খানিকটা বিপাকে পড়ে যায় গায়ানা। ২৬ বলে ৫২ করা গুরবাজও ফেরেন পরের ওভারেই, চারে নামা সাকিবও মার্ক ডিয়ালের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন ‘গোল্ডেন ডাক’ নিয়ে। এরপর শেই হোপ আর শিমরন হেটমায়ারের কল্যাণে সে বিপদ কাটিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় গায়ানা।

এর ফলে সাকিব আল হাসান যোগ দেওয়ার পর টানা দুই ম্যাচেই জয় পেল গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স। তবে ব্যাট হাতে যেমন পারফর্ম করছেন সাকিব, তাতে বাংলাদেশ খানিকটা দুশ্চিন্তায় পড়তেই পারে। কারণ সাকিব বর্তমানে বাংলাদেশের সীমিত ওভারের দলে খেলেন ৩-এ। সেই তার এমন পারফর্ম্যান্স যদি বিশ্বকাপেও চলতে থাকে, তাহলে যে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ যাত্রার পথটা বন্ধুর হয়ে যাওয়ার শঙ্কা সমূহ!

You May Also Like