গাছের মগ ডালে বসেছিল বিশাল বড় অজগর সাপ, ভ;য়ে কাঁ’পতে লাগল গ্রামবাসী, শেষ পর্যন্ত কি হলো,- ভাইরাল ভিডিও

অজগর বা পাইথন (ইংরেজি: pythons) হচ্ছে পৃথিবীর অন্যতম বৃহত্তম সাপ। অজগরকে ময়াল নামেও ডাকা হয়। এরা বিষহীন আদিম সাপ। এদের পিছনের পা-এর চিহ্ন পুরো বিলুপ্ত হয়নি।

এরা শিকারকে জোরে পেঁচিয়ে/পরিবেষ্টন (constrict) করে এরা তার দম বন্ধ করে। এরা শীকারকে সাধারনত মাথার দিক থেকে আস্ত গিলে খাওয়া শুরু করে। কারণ, এতে শীকারের বাধা দেয়ার ক্ষমতা কমে যায়। শীকার হজম করতে তাদের কয়েকদিন সময় লাগে।মৃত প্রাণী খায়না। কিছু বোড়াদেরও আছে কিন্তু গঠন ও বিবর্তন ভিন্ন পথের)।

অজগরের উপরের ঠোঁট বরাবর এই ইন্দ্রিয় অবস্থিত। আফ্রিকা মহাদেশের বিষুবীয় সাহারা অঞ্চলে পাইথন পাওয়া যায়। তবে এই মহাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম এলাকা যেমন, ওয়েষ্টার্ণ কেপ ও মাদাগাস্কারে এই প্রজাতির সাপ পাওয়া যায় না।

এশিয়া মহাদেশে ভারত, বাংলাদেশ,নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মায়ানমার, নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ এই সাপের বসতি আছে। এছাড়া দক্ষিণ চীন, ফিলিপাইন দ্বীপপুঞ্জ ও ইন্দোনেশিয়ায় পাইথন দেখতে পাওয়া যায়। পাইথন একটু দেরিতে প্রজনন শুরু করে। সাধারনত একটি সাপ ৫ থেকে ৬ বছর বয়সে প্রাপ্তবয়স্ক হয়।

এটি বর্মী অজগরের চেয়ে হালকা রঙের হয়ে থাকে এবং এর দৈর্ঘ্য প্রায় ৩ মিটারের (৯.৮ ফুট) মতো হয়। এই সাপের সচারচার কোন বিষ থাকে না। এই সাপের চাহিদা দিন-দিন অনেক কমে যাচ্ছে। ভারতে বেলাঘাট নামক একটি স্থানে এই ঘটনাটি ঘটেছে। খাবারে সন্ধ্যানে বের হয়ে অজঘর সাপটি উঠে যায় গাছের মগ ডালে।

এতে করে ঘটে যায় বিপত্তি। গাছের মগ ডালে বসেছিল মানুষ খেকো সাপ, ভয়ে কাঁপতে লাগল গ্রামবাসী, জীবন বাজী রেখে সাপটিকে উদ্ধার করল যুবকটি।

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন

You May Also Like