এই ১টি রেকর্ডের জন্যই মাহমুদুল্লাহ কে বাদ দিয়ে দলে সুযোগ পেয়েছেন শান্ত

এবার ঘোষিত বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে। অনেকটা কোনো কিছু না করেই যেন জায়াগাটা পেয়ে গেলেন।

তবে প্রধান নির্বাচক জানালেন তার ক্ষেত্রে প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে বিপিএল রেকর্ড। এদিকে ৯ ম্যাচের আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার এই বাঁহাতি ব্যাটারের। ১৮.৫০ গড় ও ১০৪.২২ স্ট্রাইক রেটে ১৪৮ রান করেছেন তিনি। সর্বশেষ জিম্বাবুয়ে সফরে তিন ম্যাচেই ব্যাট করেন, কিন্তু সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি সেভাবে। তবে এশিয়া কাপের দলে ছিলেন না। ভাবা হচ্ছিল টি-টোয়েন্টি সেট-আপ থেকে ছিটকে গেছেন।

কিন্তু অনেকটা চমক হিসেবেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্কোয়াডে টিকে যান। স্বাভাবিকভাবেই তার দলে থাকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সংবাদ সম্মেলনে এর জবাবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেছেন, বিপিএলে তার রেকর্ড দেখতে।
তার ভাষায়, ‘আপনি শান্তর বিপিএলের রেকর্ডটা দেখেন। আমাদের ঘরোয়া যে কয়জন ক্রিকেটার আছে, তাদের মধ্যে কিন্তু ওর রেকর্ডটা খারাপ নয়।

তিনি বলেন, ‘বিপিএলে যে কয়টা সেঞ্চুরি আছে লোকাল প্লেয়ারদের, বেশি কিন্তু শান্তরই করা। সেই হিসেবে যদি চিন্তাভাবনা করেন, তাহলে কিন্তু শান্তর ঘরোয়া রেকর্ড কিন্তু খুব একটা খারাপ নয়। আন্তর্জাতিকে তো এই ফরম্যাটে আমরা সবাই স্ট্রাগল করছি। টিম ম্যানেজম্যান্টের একটা মতামত আছে, আমাদের (নির্বাচক) একটা মতামত। সবার সম্মতিক্রমেই ওকে নেওয়া।’

এদিকে সব মিলিয়ে টি-টোয়েন্টিতে ৯৫ ম্যাচের ৮৯ ইনিংস খেলে ২ সেঞ্চুরিতে ২৩.৪০ গড় ও ১২২.১৬ স্ট্রাইক রেটে ১৮৯৬ রান করেছেন শান্ত।

যে বিপিএল নিয়ে তাকে দলে রাখার পক্ষে যুক্তি দিলেন প্রধান নির্বাচক সেখানে অবশ্য পারফরম্যান্স তার হয়ে কিছুটা হলেও কথা বলে। ৫৬ ম্যাচের ৫২ ইনিংসে রান করেছেন ১০২১।

যেখানে গড় ২২.১৯ ও স্ট্রাইক রেট ১১৫.৪৯। আছে একটি সেঞ্চুরিও। এর বাইরে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপেও শান্তর আছে একটি সেঞ্চুরি।

You May Also Like