গত ২০ বছরে ফিটনেস টেষ্টে পাশ, এখন ফেল?

ক্যারিয়ারে ইনজুরি মাশরাফি বিন মুর্তজার নিত্যস’ঙ্গী। তবে চোট থাকলেও বিসিবির ফিটনেস টেস্টে কখনো ফেল’ করেননি- এমন দাবি করেছেন তিনি। যারা সম্প্রতি ফিটনেস বিবেচনায় মাশরাফি বাদ পড়বেন এমন কথা বলেছেন তাদের সমালোচনাও করেছেন তিনি।

একাত্তর টিভির খেলাযোগকে এক দীর্ঘ সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মাশরাফি বিন মর’্তুজা। এ সাক্ষাৎকারটির প্রথম পর্ব প্রচারিত হয় সোমবার।মাশরাফি বলেন, “আমা’র তো ফিটনেসে কোনোদিন ফেলই নাই। আমি তো এগু’লো ক্যামেরার সামনে কখনো বলিই নাই। অনেককে হয়তো বলে শুনেছি মাশরাফি পুরোপুরি ফিট নাও থাকতে পারে।

আমি তখন অবাক হয়েছি যে এরা আসলে কতটুকু তথ্য। বাইরের একজন দর্শক বলছে, এটা খুবই স্বাভাবিক। উনি অনেক কিছু না জেনে বলতে পারে।“কিন্তু বিসিবির সাথে সম্পৃক্ত থেকে যারা বলছে… ,খুবই অবাক লাগে! তারা কি আসলে কোনো তথ্য রাখে বা আদৌ অফিস করে?

ক্যারিয়ারের শুরু থেকে সব ধরণের ফিটনেস টেস্টে কৃতকার্য হয়েছেন- এমন দাবি করেছেন মাশরাফি। তিনি বলেন, “ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই আমি মেন্টালি সেট করেছি, বাংলাদেশে যদি কখনো আপনাকে আ’ক্রমণ করা হয় কোনো কিছু নিয়ে তখন আপনি যেটাকে ছাড় দিচ্ছেন ওটাই আপনার মাইনাস পয়েন্ট হয়ে দাঁড়াবে।

“আমা’র যত ইনজুরি আসুক যাই আসুক বিগত বিশ বছরে আমা’র একটা ফিটনেস টেস্ট ফেল নাই। ২০০১ থেকে ২০২০ পর্যন্ত একটা ফিটনেস টেস্ট বের করে দেন মাশরাফি ফেইল আছে। যে কোনো জায়গায়, বিপ টেস্ট বলেন, স্ট্রেংথ ট্রেনিং টেস্ট বলেন।

একটা জায়গায় আমা’র ফেল এনে দেন। যদি দিতে পারেন, তারপর কথা বলেন।” “আপনি মা’রিওর কাছ থেকে চেয়ে নেন। ক্রিকেট বোর্ডের কাছে যদি না থাকে সেটা তো আনপ্রফেশনাল। ক্রিকেট বোর্ডের কাছে তো থাকতে হবে, ” যোগ করেন মাশরাফি।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment