ব্রেকিং নিউজ: দুই ম্যাচ খেলতে দুবাই যাচ্ছে টাইগাররা; দেখেননি সময়সূচি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল চূড়ান্ত করতে ৩ দিনের অনুশীলন ম্যাচ রাখা হয়েছিল। কোচ শ্রীধরন শ্রীরামের সে পরিকল্পনায় বাধা হয়ে দাঁড়ায় নিম্নচাপের বৃষ্টি। ১২ সেপ্টেম্বর বৃষ্টির ফাঁকে ফাঁকে ব্যাটার এবং বোলারদের দেখতে পারলে গতকালের অনুশীলন বাতিল করা হয়।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আজও বৃষ্টি রয়েছে। সেদিক থেকে ক্রিকেটারদের মাঠে দেখার সুযোগ হচ্ছে না শ্রীরামের। তাই খেলোয়াড়দের সঙ্গে পরিচিত হতে এবং কম্বিনেশন সাজাতে বিদেশে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে চেয়েছেন কোচ। বিসিবিও সে দাবি মেটাতে দুবাইয়ে আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচের ব্যবস্থা করেছে। সোহানরা ২৩ সেপ্টেম্বর দুবাই গিয়ে ৩ দিনে দুটি ম্যাচ খেলে ২৭ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরবেন।

বিসিবি চেয়েছিল নিউজিল্যান্ডে গিয়ে একটি অনুশীলন ক্যাম্প করতে। কিন্তু ১ অক্টোবরের আগে দেশটিতে বিদেশিদের প্রবেশের সুযোগ না থাকায় ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে শেষ সময়ে যেতে হচ্ছে সাকিবদের। নিউজিল্যান্ডে পৌঁছানোর ৫ দিন পরই (৭ অক্টোবর) পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগারদের ম্যাচ।

এ কারণেই কোচের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে চাওয়া বলে জানান পাপন, ‘বাংলাদেশ দল ২ তারিখে গিয়ে পৌঁছাবে, ৩ তারিখ বিশ্রাম নিলে ৪ এবং ৫ প্র্যাকটিসের সুযোগ পাবে। এ ছাড়া ৬ তারিখ একটা গ্যাপ আছে। তারা চাচ্ছিল, এই সময়টায় প্র্যাকটিস করতে পারলে ভালো হতো।

যেহেতু আমাদের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট অনেক খেলোয়াড়কে চিনেই না। কারও খেলাও দেখেনি, কাজেই তাঁর জন্যও সুবিধা হতো বুঝতে যে আসলে কম্বিনেশনটা কী হওয়া উচিত। এটা এখানে সে পারছে না। এজন্য বাইরে কোথাও ৪-৫ দিন ক্যাম্প করার চেষ্টা হচ্ছে।’

তবে বিসিবি সভাপতি এটিও জানিয়েছেন, দুবাইয়ে প্রস্তুতি ম্যাচ হলেও সেটি শারজাহর মাঠে অবশ্যই হবেনা। কেননা শারজাহর স্লো পিচে অনুশীলন করে খুব একটা লাভ হবেনা। তাই দুবাই স্টেডিয়ামে হতে পারে৷ এই প্রস্তুতি ক্যাম্প।

You May Also Like