ব্রেকিং নিউজ: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা

এবার অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল ঘোষণা করা হবে আগামীকাল বুধবার। জাতীয় দলের নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমন এ দল ঘোষণা করবেন।

তাদের দল ঘোষণার পর জাতীয় দলের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরাম সংবাদ সম্মেলন করবেন। জানা গেছে, বিশ্বকাপের জন্য মূল দলের ১৫ সদস্যের বাইরেও তিন থেকে চার জনকে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে রাখা হতে পারে।

এদিকে বিশ্বকাপের আগে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড এবং পাকিস্তানকে নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। বিশ্বকাপ এবং নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজকে সামনে রেখে তিন দিনের প্রস্তুতি ক্যাম্প করছিল বিসিবি। তবে টেকনিক্যাল কনসাল্টেন্ট শ্রীধরন শ্রীরামের নেতৃত্বে প্রস্ততি ক্যাম্পে বাগড়া বসিয়েছে আবহাওয়া।

গতকাল সোমবার ১২ সেপ্টেম্বর প্রথম দিন কিছুটা প্রস্তুতি নিতে পারলেও দ্বিতীয় দিন আজ মঙ্গলবার ১৩ সেপ্টেম্বর টাইগারদের কাটাতে হয়েছে অলস সময়। টানা বৃষ্টিতে মাঠেও নামতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। লিটন-সৌম্যরা ইনডোরে কিছুক্ষণ ব্যাটিং প্র্যাকটিস করলেও বাকিবা সময় কাটিয়েছেন ড্রেসিং রুমে।

এদিকে প্রস্তুতি ক্যাম্প করতে না পারায় শ্রীধরন শ্রীরাম টাইগারদের ঠিকমতো পরখ করতে না পারলেও বিশ্বকাপের দল চূড়ান্ত করেছেন নির্বাচকরা। বিসিবি সুত্রে জানা গেছে, আগামীকাল বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর দুপুরের মধ্যে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করবে টাইগারদের প্রধান নির্বাচকরা।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) একজন পরিচালক বলেন, ‍“আইসিসি’র বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে বিশ্বকাপের দল দেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে আগামীকাল বিশ্বকাপের দল দিয়ে দেওয়া হবে।” বিশ্বকাপ দলের সাথে স্ট্যান্ডবাই হিসেবে তিন থেকে চারজনকে রাখা হবে। যাদেরকে নিয়ে নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে যাবে বাংলাদেশ।

এদিকে বিশ্বকাপের দল চূড়ান্ত হওয়ার তথ্য নিশ্চিত করলেও সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে কে কে থাকছেন তা জানাননি তিনি। তিনি বলেন, দলের তালিকায় বিসিবি সভাপতি এখনো স্বাক্ষর করেননি। আগামীকাল বুধবার তিনি সই করলেই আপনাদের জানিয়ে দেওয়া হবে। আইসিসির বেঁধে দেওয়া সময়ের আগেই দল জেনে যাবেন।

এর আগে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের বলেন, “বিশ্বকাপের স্কোয়াড আমি এখনো দেখেনি। তালিকাটা না দিলে বলতে পারবো না কে আছে, কে নাই। কোচ আছে, অধিনায়ক আছে , নির্বাচকরা আছে তারা ঠিক করবে। আমার কোনো ধারণা নাই। তারা ঠিক করে তালিকা পাঠালে আমি সই করে দেব।”

১। লিটন দাস ২। মেহেদি হাসান মিরাজ/সৌম্য ৩। সাব্বির রহমান ৪। সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক) ৫। আফিফ হোসেন ৬। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৭। মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত

৮। ইয়াসির আলী রাব্বি ৯। নুরুল হাসান সোহান ১০। নাসুম আহমেদ/ শেখ মাহেদি ১১। মোস্তাফিজুর রহমান ১২। তাসকিন আহমেদ ১৩। এবাদত হোসেন ১৪। হাসান মাহমুদ ১৫। মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী/ শরিফুল ইসলাম

You May Also Like