ব্রেকিং নিউজঃ মিরপুরে ব্যাটিং ঝড় তুলে সমালোচকদের কঠিন জবাব দিলেন রিয়াদ

এশিয়া কাপের ব্যর্থতা ঝেড়ে এবার নতুন মিশনে বাংলাদেশ দল। সবার অধীর অপেক্ষা আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের স্বপ্নসারথি হয়ে যাবেন কারা? অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ কি থাকবেন? নাকি দীর্ঘদিন জাতীয় দলে খেলা ও লম্বা সময় অধিনায়কত্ব করা রিয়াদকে বাদ দিয়েই সাজানো হবে দল?

গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, শেষ পর্যন্ত রিয়াদ নাও থাকতে পারেন। তার বদলে ঢুকে যেতে পারেন ইয়াসির আলী রাব্বি। আজ (সোমবার) শেরে বাংলা ম্যাচ আবহে অনুশীলনেও সবার চোখ ছিল রিয়াদের ওপর। রিয়াদ কখন নামবেন?

কিন্তু সাব্বির রহমান রুম্মন, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন ধ্রুব, ইয়াসির আলী রাব্বি, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতরা ব্যাট করে ফেললেও নামেননি রিয়াদ। তবে কি তিনি এ ম্যাচে নেই? এমন প্রশ্নও উঠেছে।

শেষমেশ বিকেলে ব্যাট হাতে দেখা মিললো রিয়াদের। উইকেটে গিয়ে দারুণ ব্যাটিংই করেছেন এ অভিজ্ঞ ব্যাটার। প্রথম দিনের ম্যাচ আবহের প্রস্তুতি পর্বে সর্বোচ্চ ৪৮ রানও এসেছে তার ব্যাট থেকে। লেট মিডল অর্ডারে নেমে ৩৭ বলে দুটি করে ছক্কা-চারে ৪৮ রানের আত্মবিশ্বাসী রিয়াদ।

ব্যাটে নজর কাড়ার পরও তাকে নিয়ে প্রশ্ন। রিয়াদ কি বিশ্বকাপ দলে থাকবেন? নাকি তার বদলে তরুণ ইয়াসির রাব্বিকে দেখা যাবে দলে? টিম বাংলাদেশের ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদের কাছে ছুড়ে দেয়া হলো এ প্রশ্ন। সুজন অনেক লম্বা চওড়া জবাবে নিশ্চিত করে কিছু বলেননি।

তার কথার সারমর্ম হলো, রিয়াদকে নিয়ে কথাবার্তা চলছে। এ বিষয়টি এখনও ঝুলে আছে। তাই সুজনের ব্যাখ্যা, ‘রিয়াদ থাকবে কি থাকবে না- এখনই বলা কঠিন। সাদা বলের ক্রিকেটে রিয়াদ এখনও আমাদের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সে এখনও ক্যাম্পে আছে। এখনও চিন্তা করিনি তা না, চিন্তা আছে মাথায়। তবে এখনও সিদ্ধান্ত নেইনি। দল করার সময় সিদ্ধান্ত হবে রিয়াদ থাকবে কি থাকবে না বা রিয়াদকে আমাদের দলে প্রয়োজন আছে কি না। তবে এটুকু বলি, রিয়াদ আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।’

দল নির্বাচনী সভায় রিয়াদের বিষয়টি বেশ ভালোভাবে উত্থাপিত হবে, এমন আভাস সুজনের কণ্ঠে, ‘রিয়াদ কেন সুযোগ পাবে বা কেন সুযোগ পাবে না- এসব নিয়ে আলোচনা হওয়া ভালো। রিয়াদ যে অটোমেটিক চয়েজ না- সেটাও বলা যাবে না। আমাদের সবকিছু নিয়েই চিন্তা করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আজকেই বলছিলাম, অস্ট্রেলিয়ায় (২০১৫ সালে) ইংল্যান্ডকে যখন হারালাম রিয়াদের সেঞ্চুরি অবিশ্বাস্য ছিল। ইংল্যান্ডের মাটিতে (২০১৭ সালে) সাকিব-রিয়াদের জুটিতে নিউজিল্যান্ডকে হারালাম। রিয়াদের এমন কিছু ইনিংস আছে যেখানে ও একাই বাংলাদেশকে জিতিয়েছে। এমন একটা খেলোয়াড়কে হুট করে ‘নো’ বলতে পারবেন না।’

তবে এটুকু বলার পর আবার মুখে এমন কথা সুজনের, ‘দিনশেষে বাংলাদেশ দলের জন্য যা প্রয়োজন আমরা সেটাই করবো। রিয়াদ যেহেতু এখনও এই ফরম্যাট খেলে, এখনও সে আর দশটা খেলোয়াড়ের মতোই। তার অভিজ্ঞতা আছে, তবে কার অভিজ্ঞতা আছে। কার নেই এটার ভিত্তিতে আমরা কাউকে আলাদা করছি না।’

‘রিয়াদ আমাদের জন্য যেমন গুরুত্বপূর্ণ, রাব্বিও আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সবাই জাতীয় দলের খেলোয়াড়। একটা ছেলে এত বছর ধরে বাংলাদেশের ক্রিকেটকে সার্ভিস দিচ্ছে। তবে এটাও সত্য সারাজীবন কেউ থাকবে না, খুব স্বাভাবিক। তবে তাদের সার্ভিসকে আমরা সবসময় মূল্যায়ন করতে চাই।’

রিয়াদের অবদানের কথা টেনে সুজন বলে ওঠেন, ‘রিয়াদের এখনও খেলার আগ্রহ-চেষ্টা আছে। তবে রিয়াদের কাছ থেকে যেটা আশা করি সেটা পাইনি। ছোট ছোট রান আছে, একদম নেই তা না। ২৭ বলে ২৭ আছে, ২২ বলে কিছু রান আছে। তবে রিয়াদ ম্যাচ উইনার। ব্যক্তি থেকে দল অনেক বড়। অনেক খেলোয়াড়কেই ডাকা হয়েছে, সবাইকে সিলেকশনের জন্য ডাকা হয়েছে এমন না।’

You May Also Like