১৪ সেপ্টেম্বর দল ঘোষণা; দেখেনিন নিউজিল্যান্ড সফরে কবে যাচ্ছে বাংলাদেশ

অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছিল আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর আইসিসির বেঁধে দেয়া সময়সীমার শেষ দিনই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করবে বিসিবি।

কিন্তু ভেতরের খবর, তার একদিন আগে, ১৪ সেপ্টেম্বর বিকেলেই ঘোষিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল। সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে কোন ১৫ জন ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটের বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়া যাবেন? তা জানা হয়ে যাবে আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর বুধবার সন্ধ্যার মধ্যেই।

বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জাগো নিউজকে জানিয়েছেন এ তথ্য। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দল ঘোষণার দিনক্ষণ জানানোর পাশাপাশি বিসিবির অন্যতম সিনিয়র পরিচালক আরও একটি কথা জানিয়েছেন। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর তিন জাতি টুর্নামেন্ট খেলতে নিউজিল্যান্ড যাবে বাংলাদেশ দল।

আগে শোনা গিয়েছিল, স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড, পাকিস্তান ও বাংলাদেশকে নিয়ে অনুষ্ঠেয় ওই ত্রিদেশীয় ক্রিকেট আসরে অংশ নিতে বাংলাদেশ দল ২৩ সেপ্টেম্বর নিউজিল্যান্ড যেতে চায়; কিন্তু বিমানের টিকিট না পাওয়ায় সেটা আর হচ্ছে না।

এখন পূর্ব নির্ধারিত সূচি, মানে ৩০ সেপ্টেম্বরই নিউজিল্যান্ড যাবে জাতীয় দলের বহর। অর্থ্যাৎ বাংলাদেশ বিশ্বকাপের দল নিয়েই নিউজিল্যান্ড যাবে। এদিকে নির্বাচকরা একটা খসড়া দল সাজিয়ে রেখেছেন। এর সঙ্গে যুক্ত হবে নতুন টেকনিক্যাল অ্যাডভাইজার শ্রীধরন শ্রীরামের নিজ চোখে দেখা অভিজ্ঞতালদদ্ধ মতামত।

সঙ্গে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান এবং কোচিং স্টাফের মতামতও থাকবে। যেহেতু সাকিব সিপিএল খেলতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, তাই তার সঙ্গে জুম কনফারেন্সে কথা বলা হবে, এমনটাও শোনা গেছে।

কিন্তু তার আগে শেরে বাংলায় ৩ দিনের একটি অন্যরকম প্র্যাকটিস সেশন হবে। যার ওপর খুব বড় ধরনের না হলেও কারো কারো অন্তর্ভুক্তি, সংযোজন ও বাদপড়া নির্ভর করছে। তবে জাগো নিউজের পাঠকরা জাতীয় দলের সম্ভাব্য রুপরেখা সম্পর্কে একটা আগাম ধারণা পেয়েছেন।

দলে এক নম্বর ওপেনার লিটন দাস ছাড়াও দু’জন ‘মেকশিফট ওপেনার’ থাকবেন। সাব্বির রহমান রুম্মন আর মেহেদি হাসান মিরাজকে ওই ক্যাটাগরিতে রাখা হবে। সঙ্গে বিকল্প ওপেনার হিসেবে সৌম্য সরকার, নাইম শেখ আর নাজমুল হোসেন শান্তর একজনকে বেছে নেয়া হবে। তার মানে মাঝে দলে থাকা এনামুল হক বিজয়, পারভেজ হোসেন ইমন শেষ পর্যন্ত আর বিবেচনায় থাকছেন না।

এর বাইরে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ না ইয়াসির আলী রাব্বি, সেটা নিয়েও নির্বাচকরা এবং টিম ম্যানেজমেন্ট খানিক দোটানায়। একইভাবে তাসকিন আর মোস্তাফিজ ও সাইফউদ্দীনের পাশাপাশি পেসার কোটায় শরিফুল, এবাদত আর হাসান মাহমুদের কে যাবেন? সেটাও এখনো চূড়ান্ত হয়নি। এছাড়া বাকি পজিসনগুলো মোটামুটি সাজানো গোছানো হয়ে গেছে।

You May Also Like